Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫, ১১ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

গঠনমূলক সমালোচনার সুযোগ তৈরি করে ইরাব’র অভিষেকে শিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:৫২ এএম

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করতে সাংবাদিকদের প্রতি আহŸান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান। তারা বলেন, সাধারণ মানুষ বস্তুনিষ্ঠ ও সঠিক সংবাদ জানতে চান। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ আমরাও আশা করি। খবর বস্তুনিষ্ঠ হলে আত্ম সমালোচনার সুযোগ থাকে। গতকাল রাজধানীর আন্তজার্তিক মাতৃভাষা ইনিস্টিটিউট মিলনায়তরে এডুকেশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ইরাব) অভিষেক অনুষ্ঠানে তারা এসব কথা বলেন। 

অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, সংবাদপত্র হচ্ছে সমাজের দর্পণ। আমাদের লক্ষ্য অর্জনের সহযাত্রী সাংবাদিকরা। অনেক ভুল-ত্রæটি সাংবাদিকরা আমাদের সামনে তুলে ধরেন। বিরুদ্ধে যায় এমন সংবাদ ছাপলেও আমরা অখুশি হই না। বরং এ বিষয়টি সম্পর্কে ভালভাবে জানবার পথ তৈরি করে দেয়। গঠনম‚লক সমালোচনা হলে ভুল সংশোধন করা যায়। প্রতিদিন পত্রিকা পড়ে কোনো না কোনো ঘটনা জানতে পারি। প্রতিদিন কোনো না কোনো জেলা ডিসিকে, এসপিদের খোঁজ খবর নিয়ে জানাতে বলি। জেনে সমাধান দেয়ার চেষ্টা করি। অনেক সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং ওসিকেও ফোন করি।
তিনি বলেন, আমাদের অনেক সমস্যা, ভুল ত্রæটি আপনারা (সাংবাদিক) সামনে নিয়ে আসেন। আমি ১০ বছর মন্ত্রী থাকা অবস্থায় অনেক সমালোচনা করা হয়েছে। প্রশংসাও করা হয়েছে। অনেক বেশি করে আমাকে তুলে ধরা হয়েছে। কোনো সমালোচনার বিরুদ্ধে আমি প্রতিবাদ দেই নাই। আমি শুধু একটি বক্তব্যের ব্যাখ্যা পিআরও’র মাধ্যমে দিয়েছি। আমার বিরুদ্ধে লেখা হলে, ঘটনা সত্য না হলেও আমি সতর্ক হই। মনে করি আমাকে ভুল ধরিয়ে দিয়েছেন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, অর্থপ‚র্ণ একটি শিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য প্রযুক্তি শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। সে অনুযায়ী বিষয় ও বিভাগ চালু করা হয়েছে। কয়েকটি বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়ও প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।
মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সারা দেশের বিদ্যালয় মনিটরিং করা আমাদের পক্ষে সম্ভব না। কোন বিদ্যালয়ের কি চিত্র তা আপনাদের (সাংবাদিক) মাধ্যমে জানতে পারি। আমরা যে কাজ করছি আপনারা তা জাতির সামনে তুলে ধরেন। আমরা ভুল-ত্রæটির উর্ধ্বে নই। আপনারা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ তুলে ধরবেন। যা দেখে আমরা কাজ করতে পারি। তিনি আরও বলেন, কয়েক জন মন্ত্রী দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে না। কারো একার পক্ষে একটি দেশ নির্মাণ করা সম্ভব নয়। আপনারা দেশের উন্নয়নের এজেন্ট নিয়ে কাজ করেন। আমি আশা করি সবাই মিলে কাজ করলে জাতির জনকের সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব হবে।
সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক মো. মাহাবুবুর রহমান, ইরাব সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান খান, সাধারণ সম্পাদক সাব্বির নেওয়াজ, সহ-সভাপতি মুসতাক আহমদ, নিজামুল হক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ