Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

৩০ অক্টোবরের পর যেকোনো দিন তফসিল -ইসি সচিব

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ২:৫৮ পিএম

আগামী ৩০ অক্টোবরের পর যেকোনো দিন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলাল উদ্দীন আহমেদ। সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব একথা জানান।

তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচন কমিশন বলেও উল্লেখ করেন ‍তিনি।

হেলাল উদ্দীন আহমেদ জানান, এছাড়া আগামী ২৫ সেপ্টেম্বরের পর থেকে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা স্থায়ী ভাবে মুদ্রণ প্রক্রিয়া শুরু হবে। এইরমধ্যে ১০ কোটি ৪১ লাখ ভোটার তালিকার সিডি প্রস্তুত করা হয়েছে। সিডিগুলো এখন জেলা পর্যায়ে পাঠিয়ে দেওয়া হলেই ছাপার কাজ শুরু হবে।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে এরইমধ্যে ৩০০ আসনের সীমানা নির্ধারণ চূড়ান্ত করা হয়েছে জানিয়ে ইসি সচিব বলেন, ‘একাদশ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রের সম্ভাব্য সংখ্যা ৪০ হাজার ১৯৯টি। এর খসড়া তালিকা গত ৫ সেপ্টেম্বর প্রকাশ করা হয়েছে। এসব খসড়ার উপর সংশোধনের আবেদনও জমা পড়েছে। সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। সংসদ নির্বাচনের ২৫ দিন আগে এগুলো হালনাগাদ করে চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।’

হেলাল উদ্দীন বলেন, ‘তফলিস ঘোষণার আগ পর্যন্ত নির্বাচনের প্রায় ৮০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে এবং নির্বাচনী সামগ্রী কেনাকাটার কাজও প্রায় শেষ পর্যায়ে। নির্বাচনে প্রিসাইডিং ও পোলিং অফিসারের তালিকা তফসিল ঘোষণার পর চূড়ান্ত করা হবে।’

‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা হবে ২ লাখ ৬ হাজার ৫৪০টির মতো। নির্বাচন সম্পন্ন করতে পোলিং ও প্রিসাইডিং অফিসার হবে ৪ গুণ। নির্বাচন কেন্দ্র করে মোট ৭ লাখ কর্মকর্তার প্রয়োজন হবে’, যোগ করেন ইসি সচিব।

সব দল নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা ৪০টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ করেছি। আশা করছি সব দল নির্বাচনে অংশ নেবে। কারণ রাজনৈতিক দলের অন্যতম উদ্দেশ্যই হলো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা।’

আরপিও সংশোধনীতে কি কি পরিবর্তন এনে আইন মন্ত্রণালয়ে ভেটিংয়ের জন্য পাঠানো হয়েছে তা গোপন রাখা হয়েছে, এর কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কি কি পাঠানো হয়েছে তা সবই আপনারা সবই জানতে পারবেন।’

আপনার যা পাঠিয়েছেন তা যদি আইন মন্ত্রণালয় কিছু সংযোজন-বিয়োজন করে তাহলে তো জানা সম্ভব নয় সাংবাদিকদের এমন মন্তব্যে ইসি সচিব বলেন, ‘আইন মন্ত্রণালয় এসব করবে না বলেই আমরা আশা করি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।