Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

সন্ত্রাস মাদক লুটপাট ও জমি দখলের অভিযোগ

পঙ্কজের বিরুদ্ধে স্থানীয় আ. লীগ নেতাদের সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১:০১ এএম

বরিশাল-৪ আসনের (মেহেন্দিগঞ্জ, হিজলা, কাজীরহাট) সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। নিজের স্বার্থ হাসিলের জন্য পঙ্কজ দেবনাথ এলাকায় হত্যা, চোরাচালান, দলীয় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি, চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসা ও নৈরাজ্যসহ নানা অপকর্ম করে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন তারা। বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গে আঁতাত করে দলের মধ্যে গ্রুপিং সৃষ্টি এবং নিজস্ব সন্ত্রাসী ও ক্যাডার বাহিনী দিয়ে এলাকায় বিশৃঙ্খলা তৈরিরও অভিযোগ করা হয়েছে। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এমপি পঙ্কজ দেবনাথ।
গতকাল সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন বরিশাল-৪ আসনভুক্ত এলাকার ‘নির্যাতন-সন্ত্রাস-দুর্নীতি-মাদক প্রতিরোধ কমিটি’।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পঙ্কজ দেবনাথের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ করেন প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসচিব এবং মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন।
সংবাদ সম্মেলনে আগামী সংসদ নির্বাচনে পঙ্কজ নাথকে মনোনয়ন না দেওয়ার দাবি জানানো হয়। লিখিত বক্তব্যে দাবি করা হয়, পঙ্কজ নাথের জনপ্রিয়তা এখন প্রায় শূন্যের কোঠায়। তিনি প্রার্থী হলে তাঁর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। তাই পঙ্কজ নাথের পরিবর্তে যেকোনো যোগ্য ও আওয়ামী লীগ আদর্শে বিশ্বাসী একজনকে মনোনয়ন দেওয়ার দাবি জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক ও হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইকবাল হোসেন মাতব্বর, স্থানীয় জয়নগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সেকান্দার আলী প্রমুখ।
আনোয়ার হোসেন সাগর বলেন, পঙ্কজ দেবনাথের খবরদারি, জুলুম, অন্যায় ও অত্যাচারের কারণে এলাকায় দলের জনপ্রিয়তা এখন তলানিতে এসে ঠেকেছে। তার অপকর্মের জন্য এলাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ভাবমূর্তি সঙ্কট দেখা দিচ্ছে। শুধু তিনি একা নন, তার অনুপস্থিতিতে তার ছোট ভাই মনোজ নাথ, চাচাতো ভাই রামকৃষ্ণ নাথ, ভাগ্নে রিপন নাথের ইশারায় চলে প্রশাসনের অবৈধ বাণিজ্য ও লুটপাট। দলীয় কোনও নেতাকর্মী তার বিরুদ্ধে গেলেই প্রশাসনের দ্বারা মিথ্যা মামলা দায়ের এবং সন্ত্রাসী দিয়ে হামলা চালায়।
আনোয়ার হোসেন বলেন, পঙ্কজ দেবনাথ ১/১১-এর সময় শীর্ষ দুর্নীতিবাজ হিসেবে গ্রেফতার হন। বর্তমানে তার নির্বাচনি এলাকা বরিশাল-৪ আসনসহ রাজধানীর উত্তরা ও ধানমন্ডিতে বিলাসবহুল বাড়ি, অভিজাত এলাকায় নামে-বেনামে একাধিক পট, ফ্ল্যাট ও গার্মেন্টস রয়েছে। ভারতেও তার একাধিক বাড়ি ও মার্কেট রয়েছে। তিনি হুন্ডি, মানি লন্ডারিংয়ের মাধ্যমে দেশের বাইরে শত শত কোটি টাকা পাচার করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ