Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

লেগুনা গাড়ির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ যাত্রী নিহত

৭ জনসহ বিভিন্ন স্থানে নিহত ১৫

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজারগামী স্টার লাইন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি বাস চকরিয়ার বরইতলী রাস্তার মাথায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা লেগুনা গাড়ির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ যাত্রী নিহত ও অন্তত ৮ যাত্রী আহত হয়েছেন। এছাড়া গত ৪৮ ঘণ্টায় গোপালগঞ্জ ঠাকুরগাঁও, শ্রীপুর (গাজীপুর), সিরাজগঞ্জ, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, সাভার ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৮ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৩০ জন। আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্য নিয়ে এ প্রতিবেদন:
জাকের উল্লাহ চকোরী,কক্সবাজার থেকে জানান, চট্টগ্রামে নিহতদের মধ্যে তিনজন নারী ও চার পুরুষ রয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষনিক উপজেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মহাসড়কের বরইতলী নতুন রাস্তার মাথা এলাকায় ঘটেছে মর্মান্তিক এ সড়ক দুর্ঘটনা। নিহতরা হলেন, লেগুনার চালক চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর এলাকার আহমদ হোসেনের ছেলে খাইর আহমদ (৪০), চকরিয়া উপজেলার উত্তর হারবাং পাহাড়তলী এলাকার সাইফুল ইসলামের ছেলে আবুল কাশেম (২৭) ও হারবাং লালব্রীজ এলাকার মনজুর আলমের ছেলে জহির আলম (৩২)। বরইতলী এলাকার মনজুর আলমের ছেলে শফিকুল কাদের তুসার (১৮) হারবাং এলাকার মোস্তাক আহমদের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৫০) লোহাগাড়ার চুনতী এল্াকার যতিন্দ্র সিকদারের স্ত্রী বাসন্তী সিকদার (৬৫ ) লোহাগাড়ার আধুনগর এলাকার আবূল কাসেমের স্ত্রী জাইতুন আকতার (৩০) বলে নিশ্চিত করেছেন হাইওয়ে পুলিশ।
প্রত্যক্ষদর্শী ও হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সংঘর্ষে লেগুনা গাড়ির ১ নারী যাত্রী ঘটনাস্থলে নিহত হয়। গুরুতর আহত অপর ৬ যাত্রীদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ইউনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে ৬ জনই মারা যায়। এর মধ্যে তিনজন মহিলা ও অপর চারজন পুরুষ যাত্রী। চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির আইসি (ইনর্চাজ) সার্জেন্ট নুরে আলম বলেন, ঘটনার খবর পাওয়ার সাথে সাথে হাইওয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে ৬ জনই মারা যায়। দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি দুটি জব্দ করা হয়েছে।
স্টাফ রিপোর্টার গোপালগঞ্জ থেকে জানান, গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে গতকাল মাইক্রোবাস চাপায় কিঞ্জর রায় (১২) নামের তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্র নিহত হয়েছে। ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মুকসুদপুর উপজেলার দাসেরহাট নামক স্থানে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।
মুকসুদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তফা কামাল পাশা জানান, রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকাগামী একটি মাইক্রোবাস শিশুটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। খবর পেয়ে মুকসুদপুর থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। এ ঘটনায় সহপাঠী ও স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। মাইক্রোবাসটি ছেলেটিকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। ঘাতক গাড়িটি আটকের জন্য মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে বার্তা পাঠানো হয়েছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা।
ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় মহাসড়কের তেলিপাড়া নামক স্থানে গতকাল পিকআপভ্যান ও দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোজাফফর হোসেন নামে এক মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে।
নিহত মোফাজ্জল হোসেন কাজী পোল্ট্রি ফার্মের গাড়ি চালক। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন শিরিন আক্তার ও ফজলুল করিম নামে আরো ২ জন। আহতদের ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা পিকআপভ্যানটি তেলিপাড়া নামক স্থানে আসলে বিপরীত দিক থেকে আসা দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
শ্রীপুর (গাজীপুর) : গাজীপুরের শ্রীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গতকাল মাওনা উড়াল সেতুর উপর অজ্ঞাতনামা এক গাড়ি চাপায় নাঈম আহমেদ নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী চালক নিহত হয়েছেন। নিহত নাঈম আহমেদ শ্রীপুর পৌর এলাকার ভাংনাহাটি গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে। তিনি পেশায় একজন ইলেকট্রিশিয়ান। মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেন জানান, উড়াল সেতুর উপর ঢাকাগামী লেনে অজ্ঞাত এক গাড়ি মোটরসাইকেলকে চাপা দিলে চালক নাঈম গুরুতর আহত হয়। টহলরত পুলিশের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে মাওনা চৌরাস্তার আলহেরা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সিরাজগঞ্জ : জেলার বেলকুচিতে গত সোমবার সড়ক দুর্ঘটনায় অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরো তিনজন।
বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক জানান, সিরাজগঞ্জ থেকে সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশা বেলকুচিতে যাওয়ার পথে সিরাজগঞ্জ-এনায়েতপুর সড়কের আমবাড়িয়া এলাকায় পৌঁছালে সামনের চাকা ফেটে যায়। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সিএনজি অটোরিকশাটি পাশের একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে একজন নিহত ও তিনজন আহত হয়
বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) : রাজবাড়ীতে রাইস কুকারের তারে জড়িয়ে মেয়ের মৃত্যু সংবাদ শুনে তাকে দেখতে যাওয়ার পথে গত সোমবার সড়ক দুর্ঘটনা মায়ের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত তার ছেলে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। বালিয়াকান্দি হাসপাতালের কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ডা: জুয়েল রানা জানান, মেয়ের মৃত্যুর খবর শুনে কামরুন নাহারের মা ও ভাই বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণবাড়ী (শীতলদাহ) গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত বিডিআর সদস্য আ: কাদের মিয়ার স্ত্রী রওশনারা বেগম (৬৫) ও ছেলে বালিয়াকান্দি বাজারের ব্যবসায়ী রাশেদ মিয়া (৩০) মোটরসাইকেল যোগে পাংশা যাচ্ছিলেন। যাওয়ার পথে কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের মাজবাড়ী এলাকায় পৌঁছালে একটি অটোবাইককে ক্রস করে যাওয়ার সময় সামনে থেকে আসা একটি দ্রুতগতির মোটরসাইকেলের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মা-ছেলে দু’জনই মারাত্মক আহত হন। তাদেরকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন মা ও ছেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাতেই তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে রওশনারা বেগম মারা যায়। রাশেদ মিয়া ঢাকা মেডিকেলে মৃত্যুর মুখোমুখি অবস্থায় আছেন। মা ও মেয়ের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
শরীয়তপুর : শরীয়তপুরে গত সোমবার নুরুন্নাহার (৬) নামে এক শিশু বাসচাপায় নিহত হয়েছে। নিহত শিশু নুরুন্নাহার রুদ্রকর ইউনিয়নের জাগির গ্রামের আজগর মাঝির মেয়ে। দুর্ঘটনার পর বাসচালক ও হেলপারকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছে উত্তেজিত জনতা। সেই সঙ্গে বাসটি ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয়। নিহত শিশুর পরিবার ও পালং মডেল থানা সূত্র জানায়, নুরুন্নাহার তার বান্ধবীদের সঙ্গে শরীয়তপুর-নাগেপাড়া সড়কের মালতকান্দি এলাকা দিয়ে যাচ্ছিল। নাগেরপাড়া থেকে ছেড়ে আসা আহাম্মদ আমজাদিয়া নামক একটি যাত্রীবাহী বাস নুরুন্নাহারকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই নুরুন্নাহার নিহত হয়। পালং মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, দুর্ঘটনার পর বাসচালক ও হেলপারকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দেয় স্থানীয় জনতা। সেই সঙ্গে বাসটি ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয়।
পিরোজপুর : পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলায় গত সোমবার বিআরটিসির একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খালে পড়ে যায়। এতে বাসা থাকা ১৩ যাত্রী আহত হন । ভান্ডারিয়া ফায়ার সার্ভিসের লিডার আবুল কালাম জানান, বিকেলে মঠবাড়িয়া থেকে ছেড়ে আসা বিআরটিসির যাত্রীবাহী বাস বরিশাল যাওয়ার পথে ভান্ডারিয়া উপজেলার ইকড়ি বাসস্ট্যান্ডের দক্ষিণ পাশে এলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খালে পড়ে যায়। এসময় বাসে থাকা যাত্রীদের মধ্যে ১৩ জন আহত হন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া : গত সোমবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার মনিয়ন্দে রাস্তা পাড়াপাড়ের সময় মটর সাইকলের ধাক্কায় সৌরভ (৯) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়। সে ময়মনসিংহের গৌরীপুর গ্রামের রুবেল মিয়ার ছেলে। শিশুটির পিতা রুবেল মিয়া জানান, সৌরভ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ গ্রামে নানার বাড়িতে এসেছিল। রাতে সড়ক পারাপারের সময় মটর সাইকেল তাকে ধাক্কা দিলে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এ ঘটনায় স্থানীয়রা মটর সাইকেল ও তার চালককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
সাভার (ঢাকা) : সাভার-আরিচা মহাসড়কের উলাইল আল মুসলিম গার্মেন্টসের সামনে পিকআপ ভ্যানের চাপায় এজিআই গ্রুপের এক নারী শ্রমিক নিহত এবং অপর দুইজন আহত হয়েছেন। নিহতের নাম রমিজা বেগম (৪৩)। তিনি পৌর এলাকার উলাইল ময়লার মোড়ের রহমত আলীর মেয়ে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত রোববার রাতে কর্মস্থল থেকে রিকশায় তিন নারীশ্রমিক বাসায় ফেরার পথে ঘটনাস্থলে একটি পিকআপ ভ্যান পেছন থেকে রিকশাকে চাপা দিলে স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করে। গভীর রাতে রমিজা বেগম মারা যান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ