Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

২৪ ঘণ্টা মনিটরিংয়ে থাকবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম জানিয়েছেন, ফেসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব প্রতিহত করতে গুজব শনাক্তকরণ ও নিরসন সেল দিন-রাত ২৪ ঘণ্টা কাজ করবে। এই সেল কোনো গুজব ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়ার আগেই তা শনাক্ত করে ৩ ঘণ্টার মধ্যে গুজবের সত্যতা সম্পর্কে গণমাধ্যমকে জানাবে।
গতকাল বুধবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মলনে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। তারানা হালিম বলেন, যেকোনো গুজব অসুন্ধানে তথ্য সেল গঠন করা হবে। আট ঘণ্টা করে তিনটি শিফটে মোট ২৪ ঘণ্টা মনিটরিংয়ে রাখা হবে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। প্রতিটি শিফটে সাতজন করে কাজ করবে। কোনো গুজব পাওয়া গেলে ৩ ঘণ্টার মধ্যে এর সত্যতা সম্পর্কে গণমাধ্যমে জানানো হবে।
তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সাফ ফুটবল সম্প্রচার করা হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) এই টুর্নামেন্টের খেলা সম্প্রচার করেছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট এখন যেকোনো সম্প্রচারের সক্ষমতা অর্জন করেছে। এ কারণে দেশের সবগুলো বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে এই স্যাটেলাইটের সেবা নিতে এরই মধ্যে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, বিটিভি প্রতি বছর স্যাটেলাইট ফি দিত ছয় কোটি টাকা। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সম্প্রচারে যাওয়ায় এ টাকা এখন সাশ্রয় হবে।
পাবলিক বাসে বাসায় গেলেন তারানা
গতকাল বুধবার সচিবালয়ে অফিস শেষে পাবলিক বাসে বাসায় ফিরেছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। এখন থেকে নিয়মিত পাবলিক বাসে অফিসে আসা-যাওয়া করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। তথ্য প্রতিমন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. এনায়েত হোসেন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, অফিস শেষে প্রতিমন্ত্রী দুপুরে জিপিও মোড় থেকে ৬ নম্বর বাসে গুলশানের বাসায় গেছেন।
নিয়মিত পাবলিক বাসে অফিসে আসা-যাওয়া করবেন জানিয়ে জনসংযোগ কর্মকর্তা বলেন, জিপিও মোড় থেকে দুপুর সাড়ে ১২টায় রওনা দিয়ে প্রায় বেলা ২টার দিকে গুলশানের বাসভবনে পৌঁছেন। পাবলিক বাসে যাতায়াতের পর এক প্রতিক্রিয়ায় তারানা হালিম বলেন, পাবলিক বাসে কেন উঠতে পারব না? দুপুর ১২টায় উঠলাম। পুরানা পল্টন- তেজগাঁও-গুলশান রুটের বাস। আমাকে দেখে কী যে খুশি যাত্রীরা। কেউ অবাক হয়, কেউ সেলফি তোলে। কেউ বলে অনেক গরম, পারবেন তো?’ আমি বললাম, আপনারা পারলে আমিও পারব। সবার সঙ্গে কথা বলা, ছবি তোলা। খুব ভালো লাগল।##



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ