Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ঝিনাইগাতীতে প্রাকৃতিক মাছের তীব্র আকাল

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) উপজেলা সংবাদদাতা: | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম | আপডেট : ১২:১২ এএম, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে এবার পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত না হওয়ায় নদীনালা, খালবিল ও জলাশয়ে প্রাকৃতিক মাছের এখন চলছে তীব্র আকাল। বংশবিস্তারেও ঘটেছে মারাত্মক বিপর্যয়। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে পর্যাপ্ত বৃষ্টি না থাকায় নদীনালা, খালবিল শুকিয়ে যাওয়ায় যেমন প্রাকৃতিক মৎস্য সম্পদ ধ্বংস হয়ে গেছে। তেমনি ঘটেছে পরিবেশ বিপর্যয়। পাশাপাশি এর সাথে জড়িত শত শত জেলে বেকার হয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে।
সাধারণত মে-জুনে বেশীর ভাগ প্রাকৃতিক মাছ ডিম ছাড়ে। আর এই ডিম ফুটে জুলাই-আগষ্ট মাসে। পোনা মাছ আকারে তা এই সময়টায় বড় হয়। কিন্তু এবার জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে মে-জুন থেকে জুলাই পর্যন্ত বলতে গেলে কোন বৃষ্টিই হয়নি। আবার উচ্চ তাপমাত্রার কারণে অনেক মাছের ডিম শুকিয়ে গেছে মাছের পেটেই। জুলাই এর শেষের দিকে সামান্য বৃষ্টিতে পানি এলেও প্রাকৃতিক মাছ কৈ, মাগুর, সিং, টেংড়া, পুটি, দারকিনা, মলা, চেলা, ঢেলা, চিংড়ি ইত্যাদি ছোট মাছ ছাড়াও প্রাকৃতিক বড় বড় মাছ পাওয়া যেত এখানে। কিন্তু কালক্রমে বর্তমানে চলছে দেশীয় প্রজাতির মাছের তীব্র আকাল। এখনো কিছু কিছু প্রাকৃতিক মাছ পাওয়া যায়। কিন্তুু এবার সে সব মাছ দেখাই যাচ্ছেনা। বলতে গেলে এসব মাছের পোনা পর্যন্ত দেখা যাচ্ছেনা। যাও সামান্য কিছু দেখা যায় তাও এক শ্রেনীর জেলেরা অবাধে ধরে বিক্রি করছে।
অথচ সেই আদিকাল থেকেই ঝিনাইগাতীর নদীনালা, খালবিলে পর্যাপ্ত প্রাকৃতিক মাছ পাওয়া যেত। যা এখানকার চাহিদা মিটিয়ে দেশের অন্যান্য স্থানেও চলে যেত। কিন্তুু এবার টানা অনাবৃষ্টি এবং উচ্চ তাপমাত্রার কারণে চলতি মৌসুমে প্রাকৃতিক মাছ ডিম ছাড়তে না পারায় ঝিনাইগাতীতে প্রাকৃতিক ( দেশীয় ) মাছের চরম সঙ্কট দেখা দিয়েছে। আর এ সঙ্কট দূর করতে সরকার দেশব্যাপি মৎস্য বিভাগের মাধ্যমে প্লাবনভূমিতে পোনা অবমুক্ত করে মাছ চাষ স¤প্রসারণের উদ্যোগের অংশ হিসেবে ঝিনাইগাতীতে যে কর্মসূচী, তা কতটুকু বাস্তবায়িত হয়, তা নিয়েও সচেতন মহলের রয়েছে ব্যাপক সন্দেহ সংশয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ