Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

আভিজাত্যের বিরুদ্ধে প্রেমের লড়াই মুখোমুখি বাবা মেয়ে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:৪৪ এএম

মিথ্যা মামলা, হত্যা ও অপহরণের হুমকি এবং হয়রানি থেকে বাঁচতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন অসহায় এক কন্যা। গতকাল রাজধানীর সেগুনবাগিচার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নিজের বাবার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন কন্যা লিমা সাহা (২৮)। লিখিত বক্তব্যে লিমা বলেন, তার বাবা সুরেশ সরিষার তেল কোম্পানির কর্ণধার সুধীর চন্দ্র সাহা। বাবার অমতে নিজের পছন্দের ছেলে সৈকত পালকে ভালোবেসে বিয়ে করায় তাকেসহ তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনকে প্রতিনিয়ত হত্যা ও অপহরণের হুমকি দিচ্ছে তার বাবা। মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। এতে তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন অবরুদ্ধ জীবন যাপন করছেন। বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন সবাই। তিনি তার ও শ্বশুর বাড়ির লোকদের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিতে সংশ্লিষ্ট স্থানীয় মন্ত্রীসহ প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে স্বামী সৈকত ছাড়াও অন্যান্য স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।
লিমা বলেন, কলেজে পড়ার সময় সহপাঠী সৈকতের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। সৈকতদের তুলনায় তার বাবার আর্থিক অবস্থা ভালো এবং পারিবারিক পদবী ভিন্ন হওয়ায় হওয়ায় শুরু থেকে সম্পর্কটি মানতে চাননি তিনি। সৈকতকে ভুলে যাওয়ার জন্য তাকে দুই বছরের বেশি গৃহবন্দী করে রাখা হয়। নিয়মিত মারধর করা হতো। শেষমেষ জোর করে ভারতে নিয়ে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে তিনি ভারতীয় পুলিশের সহায়তায় বাংলাদেশে ফিরে আসেন। শাহজালাল বিমানবন্দরে নেমে বাবার কাছ থেকে পালিয়ে গিয়ে গত ২৪ মে বিয়ে হিন্দু রীতি অনুযায়ী রেজিস্ট্রির মাধ্যমে সৈকতকে বিয়ে করেন। তিনি আরও বলেন, গত ১২ জুন সৈকতকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার বাবা ভাড়াটিয়া গুন্ডা বাহিনী পাঠিয়েছিল। তারা ঢাকার নিউমার্কেটের ১ নম্বর গেটের সামনে একটি নোয়া মাইক্রোবাসের ভেতরে সৈকতকে উঠানোর সময় পুলিশ ও জনতার রোষানালে পরে। পরে নিউমার্কেট থানা পুলিশ তাদের কয়েকজনকে আটক করে। ওই ঘটনায় একটি মামলাও করা হয়। উল্লেখ, নিউমার্কেট থানায় দায়ের করা অপহরণের ওই মামলায় সুধীর চন্দ্র সাহাকে গত ১২ আগস্ট তিন দিনের রিমান্ডে নেয় নিউমার্কেট থানা পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ