Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

মুক্তিপনের টাকা নিতে এসে ধরা পড়লো অপহরণকারী

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪:৪৫ পিএম

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরের বলুহর মৎস হ্যাচারী এলাকা থেকে ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবীতে অপহৃত সুজন আহম্মেদ নামে এক যুবককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় মুক্তিপনের ৫ লাখ টাকাসহ গ্রেফতরা হয়েছে শাহরিয়ার রহমান মামুন নামে এক দুর্বৃত্ত। অপহৃত সুজন মহেশপুর উপজেলার আলামপুর ৪নং কলোনীর মো: বিশু মিয়ার ছেলে। কোটচাঁদপুর থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা জানান, গত ১১ সেপ্টেম্বর রাতে কোটচাঁদপুর-মহেশপুর সড়ক থেকে সুজনকে একদল অপহরণকারী সুজনকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তারা সুজনের পরিবারের কাছে ২০ লাখ টাকা মুক্তি পণ দাবি করে আসছিল। সুজনের পরিবার থানায় জানানোর পর পুলিশের পরামর্শে অপহরণকারীদের সাথে তারা কথা বলতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা ৫ লাখ টাকায় সুজনকে ফেরত দিতে সম্মত হয়। চুক্তি অনুযায়ি শুক্রবার দুপুর ১.৩০ মিনিটের দিকে কোটচাঁদপুর বলুহর মৎস হ্যাচারী এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে টাকা ও বন্দি বিনিময়ের করে। তিনি বলেন, মুক্তিপনের টাকা লেনদেনের খবর পেয়ে পুলিশ বলুহর মৎস হ্যাচারী এলাকায় সাদা পোশাকে অবস্থান নেয়। সেখানে মো: শাহারিয়ার রহমান মামুন টাকা গ্রহন করছিল। এ সময় হাতে নাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অপহারণকারী মামুন কোটচাঁদপুর কলেজ বাস স্ট্যান্ড এলাকার সাবেক চেয়ারম্যান মো: মসিয়ার রহমানের ছেলে। সে মাদকাসক্ত ও নানা সমাজ বিরোধী কাজের সাথে জড়িত। ভিকটিম সুজন আহাম্মেদকে উদ্ধার করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। কাটচাঁদপুর মডেল থানার ডিউটি অফিসার এএসআই জামাল উদ্দিন বলেন, এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে।



 

Show all comments
  • ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৬:০০ পিএম says : 0
    Akay arrest na koray shatay shatay cross fire dewa ucit cilo, kompokkhay 1 jon cintaikari kom hoto. ato kaler moddhay jabinay ber hoya jabay.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ