Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

শাহজালালে ৪৭ লাখ টাকা মূল্যের স্বর্ণ উদ্ধার : আটক ২

প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৃথক ২টি ঘটনায় প্রায় ১ কেজি ২০০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করেছে শুল্ক ও গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। মালয়েশিয়া থেকে আগত একযাত্রীর কাছ থেকে ৫৭৫ গ্রাম স্বর্ণে ১৫টি বার জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকায় গিয়াস উদ্দিন নামে একযাত্রীকে শুল্ক গোয়েন্দা সদস্যরা আটক করেছে। এদিকে শাহজালাল বিমানবন্দরে গত শুক্রবার গভীর রাতে স্বর্ণ উদ্ধারের ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। শ্যাম্পুর বোতলের ভিতরে করে অভিনব কায়দায় আনা ৬শ’ গ্রাম সোনা উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দারা। মালয়েশিয়া থেকে আসা শেখ রনি আহমেদ নামে একব্যক্তিকে এসময় আটক করা হয়। তাকে শুল্ক গোয়েন্দা কার্যালয়ে রাখা হয়েছে। তার বাবার নাম আয়নাল শেখ। গোপালগঞ্জ জেলার মোকসেদপুর পূর্ব নওখন্দা গ্রামে তার বাড়ি বলে জানা গেছে।
গতকাল শনিবার দুপুরে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে এমএইচ-১০২ ফ্লাইটে ঢাকায় আসেন গিয়াস উদ্দিন। আটক গিয়াস উদ্দিনের বাড়ি মুন্সিগঞ্জের মালাপাড়া গ্রামে বলে জানা গেছে।
শুল্ক গোয়েন্দার মহাপরিচাক ড. মইনুল খান জানান, বিমানবন্দরে ওই ব্যক্তির গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা লাগেজ তল্লাশি করেন। এ সময় লাগেজ থেকে একটি চার্জজার লাইটের ব্যাটারির ভেতর থেকে ১৫টি স্বর্ণের বারসহ ৮০ গ্রাম অলঙ্কার উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বারের মূল্য ২৫ লাখ টাকা হবে।
শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. মঈনুল খান আরো জানান, আটক গিয়াস কুয়ালালামপুর থেকে এমএইচ-১০২ ফ্লাইটে করে বিমানবন্দরে পৌঁছান। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে তাকে তল্লাশি করার পর তার লাগেজে থাকা চার্জার লাইটের ব্যাটারির চেম্বার ভেঙে স্বর্ণগুলো উদ্ধার করা হয়। স্বর্ণগুলোর মধ্যে ১৫টি ছোট টুকরা ও ৮০ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কার রয়েছে। এগুলোর মোট ওজন ৫৭৫ গ্রাম। উদ্ধার স্বর্ণের আনুমানিক মূল্য ২৫ লাখ টাকা।
শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের এক সূত্র জানায়, শুক্রবার রাত ১২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুয়ালালামপুর থেকে আসা মালিন্দো এয়ারলাইন্সের যাত্রী শেখ রনি আহমেদকে তল্লাশি করা হয়। এসময় তার কাছে থাকা প্যানটিন ব্র্যান্ডের ৪০০ মিলিলিটারের দুটি শ্যাম্পুর বোতলের ভেতর সোনা রাখা ছিল। সোনার বার গলিয়ে লম্বা দুটি কাঠি তৈরি করে বোতল দুটির ভেতর ঢোকানো অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তা উদ্ধারের পর ওজন করে ৬শ’ গ্রাম সোনা পাওয়া যায়। উদ্ধারকৃত সোনার মূল্য প্রায় ২২ লাখ টাকা হবে বলে শুল্ক গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে।
সূত্র জানায়, আটক শেখ রনি এর আগে ১ কোটি ২০ লাখ টাকার চোরাকারবারির মালামালসহ আটক হয়েছিল। শেখ রনি আন্তর্জাতিক চোরাচালানী দলের সক্রিয় সদস্য। তিনি আটক হওয়ার পর থেকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাকে ছাড়ানোর জন্য একটি মহল চেষ্টা চালিয়েছে বলে জানা গেছে।
আটক রনি শেখ শুল্ক গোয়েন্দাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, আটককৃত সোনার মালিক তিনি নন। মালয়েশিয়াতে বেড়াতে গেলে একব্যক্তি ঢাকায় তার এক স্বজনের জন্য দুই বোতল শ্যাম্পু দিয়েছিলেন। শ্যাম্পুর বোতলের ভেতর সোনা থাকার কথা তিনি জানতেন না। শুল্ক গোয়েন্দার মহাপরিচালক ড. মইনুল খান এক ক্ষুদে বার্তায় রনি শেখ নামে এক ব্যক্তিকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শাহজালালে ৪৭ লাখ টাকা মূল্যের স্বর্ণ উদ্ধার : আটক ২
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ