Inqilab Logo

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

হাইকোর্টের আদেশ বহাল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

আলোকচিত্রী শহীদুল আলমকে কারাগারে প্রথম শ্রেণির বন্দি মর্যাদা দিতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিতের জন্য করা রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন কার্যতালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন চেম্বার আদালত। একই সঙ্গে রাষ্ট্রপক্ষকে লিভ টু আপিল করতে বলেছেন আদালত। গতকাল চেম্বার বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনটি কার্যতালিকা থেকে বাদ দেয়ার এ আদেশ দেন। ফলে শহীদুলের আলমের ডিভিশনের আদেশ বহাল থাকছে বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়–য়া। আদালতে শুনানিতে শহীদুলের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন; রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।
গত ৫ সেপ্টেম্বর আলোকচিত্রী শহীদুল আলমকে প্রথম শ্রেণির বন্দি মর্যাদা দিতে স্বরাষ্ট্র সচিব ও কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। শহিদুল আলমের স্ত্রী রেহনুমা আহমেদের করা রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি বোরহান উদ্দিন ও বিচারপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। গত রোববার এই আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। পরে সারা হোসেন পরে সাংবাদিকদের বলেন, ডিভিশন দেয়ার আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন কার্যতালিকা থেকে বাদ দেয়ায় হাইকোর্টের আদেশই বহাল থাকছে।
গত ২৭ অগাস্ট শহিদুল আলমকে প্রথম শ্রেণির বন্দির মর্যাদা দিতে মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে আবেদন করা হয়েছিল। আদালত কারা কর্তৃপক্ষকে কারাবিধি অনুযায়ী পদক্ষেপ নিতে বলে। কারা কর্তৃপক্ষ ২৮ আগস্ট তা অনুমোদনের জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে পাঠায়। এর এক সপ্তাহ পর ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমোদনের দীর্ঘসূত্রিতার কারণ উল্লেখ ও প্রথম শ্রেণির বন্দী সুবিধা চেয়ে রিট করেন রেহনুমা আহমেদ।
নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গত ৫ অগাস্ট রাতে পুলিশ গ্রেফতার করে দৃক গ্যালারি ও পাঠশালা সাউথ এশিয়ান মিডিয়া ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা শহীদুলকে। পরে উসকানিমূলক ও মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগে শহীদুল আলমের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে এ মামলা করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শহীদুল আলম

১৬ নভেম্বর, ২০১৮
১৫ নভেম্বর, ২০১৮
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন