Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

৯৬ বছর বয়সী বিশ্বের প্রবীণ ফিট ব্যক্তির ডায়েট ও ব্যায়ামের কিছু পরামর্শ

প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : অবসরগ্রহণ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে ৯৬ বছর বয়সী চার্লস ইউগস্টার সাথে সাথে জবাব দেন এটা একটি নোংরা শব্দ। একজন বডিবিল্ডার ও দৌড়বিদ যিনি ৬০ মিটার থেকে ৪ শো মিটারের বিভিন্ন দৌড়ে তার বয়স গ্রুপে অনেক বিশ্ব রেকর্ড করেছেন, ৯৬ বছর বয়সী ইউগস্টার মূলত এই গ্রহে শারীরিকভাবে সবচেয়ে ফিট একজন ব্যক্তি। তিনি এ ক্ষেত্রে একজন আইকন। বেশী বয়সী লোকদের জন্য সুস্থ জীবনযাপনে অবশ্যই পুষ্টি ও ব্যায়াম তার পরামর্শের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। তবে সর্বোপরি আরো একটি ফ্যাক্টর রয়েছে। সেটা হলো কাজের মধ্যে নিয়োজিত থাকা। তিনি বলেন, অবসরগ্রহন আপনার জীবনের সবচেয়ে খারাপ বিষয়। সুইজারল্যান্ডের জুরিখে নিজ বাসায় ‘টুডে’র সঙ্গে আলাপকালে ইউগস্টার এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ব্রিটেনের রাণী এলিজাবেথকে দেখুন। তিনি এইমাত্র ৯০ বছর পূর্ণ করলেন। তার সিডিউল দেখুন ব্যস্ততায় ভরা। বাকিংহাম প্যালেসে যারা জগিং করেন তিনি তাদের মতো নন। তাকে প্রচুর সময় দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। যারা কেবল বসে থাকেন তিনি তাদের মতো নন। শুধু শুধু বসে থাকা সুস্থতার লক্ষণ নয়। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন।
১৯১৯ সালে লন্ডনে জন্মগ্রহনকারী ইউগস্টারের ব্রিটিশ-সুইস দ্বৈত নাগরিকত্ব রয়েছে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি অর্জনের পর পরিণত জীবনের বেশীর ভাগ সময়ই তিনি ছিলেন একজন ডেন্টিস্ট। দুইবার বিয়ে করেছেন এবং দুই সন্তানের পিতা। বয়স যখন ৭৫, তখন তিনি ডেন্টাল নিউজলেটার বের করেন এবং ৮২ বছর পর্যন্ত তা অব্যাহত রাখেন। ১৪ বছর আগে সড়ক দুর্ঘটনায় তার দ্বিতীয় স্ত্রী মারা যাওয়ার পর থেকে তিনি একাকী। তার অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে জুলাইয়ে বয়স ৯৭ হলে তিনি একটি বই লিখবেন।
তিনি বলেন, বয়স্ক লোকদের স্বাস্থ্যবান এবং উৎপাদনশীল দেখতে সামর্থ্যরে মধ্যে আমাদের অবশ্যই সবকিছু করতে হবে। এটা না করায় আমরা পেনশনের দায় বহন করা ও আমাদের স্বাস্থ্য ব্যায়ের মধ্যে নানা সমস্যার সন্মুখীন হচ্ছি। আমাদের উচিত বয়স্ক লোকদের জন্য পুনঃপ্রশিক্ষণ সুবিধার ব্যবস্থা করা। ৬৫ বছরে দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা আপনি দূরে ঠেলে দিচ্ছেন যা অবশ্যই এক ধরণের পরিহাস।
অবসরগ্রহনের পর প্রতি ৫ বছরে বিষন্নতা দ্বিগুণ হয়। আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি অবসরগ্রহনের পর অনেক কিছু করার আছে। এটা বিরাট ধকল যদি সমাজে আপনি কোন অবদান রাখার চেষ্টা না করেন।
ইউগস্টার জোর দিয়ে বলেন, এটা কখনো ভাববেন না যে আপনার খুব বেশী বয়স হয়ে গেছে যাতে আপনি আর শরীর গঠন করতে পারবেন না। বৈচিত্রপূর্ণ জীবনে ৮৭ বছরের আগ পর্যন্ত তিনি কোন সিরিয়াস ভারী প্রশিক্ষণ শুরু করেননি এবং ৯৫ বছর না হওয়া পর্যন্ত তিনি দৌড়ানো শুরু করেন নি।
তিনি পেশী গঠনে একজন সাবেক মিঃ ইউনিভার্সের সঙ্গে একটি জিমে সপ্তাহে তিনদিনের কাজ শুরু করেন এবং ৮৮ বছরে পদার্পণের আগেই তিনি ২৪ পাউন্ড ওজন হারান। গত ১৩ এপ্রিল তার হাঁটুর পেছনে শিরায় টান লাগা সত্ত্বেও ইউগস্টার গ্রীষ্মের জন্য ‘সৈকত শরীর’ গঠনে এখন একজন প্রশিক্ষকের সঙ্গে কাজ করছেন।
তিনি বলেন, ৮৭ বছর বয়সে আমি লক্ষ্য করি যে সপ্তাহে ৬ দিন নৌকাচালানো সত্তেও আমার শরীরের অবনতি হচ্ছে। তখন শরীরের প্রতি আরো বেশী মনোযোগ দিলাম। আমাকে কেমন দেখাচ্ছে সেটা চিন্তা না করে আমার আরও পেশী গঠন দরকার এটার উপর জোর দিলাম। তিনি বলেন, বয়স ৮৫ হলে আপনার পেশী ও শক্তি-সামর্থ্য ৫০ শতাংশ হারাতে পারেন। বয়সকালে এটা বেশী গুরুত্বপূর্ণ যে শরীরের পেশী গঠনে আপনি যাতে সবকিছু করতে পারেন এটা আমার চিন্তার বিষয় হয়ে উঠে।
জীবনের পড়ন্ত বেলায় যারা শরীরের ফিটনেস বজায় রাখতে চান তাদের উদ্দেশ্যে কিছু ব্যায়াম ও ডায়েট সম্পর্কে ইউগস্টারের কিছু পরামর্শ রয়েছে।
হাই-ইনটেনসিটি ইন্টরভ্যাল ট্রেনিংয়ে নিয়োজিত হওয়া : শরীর গঠনে এতে কম সময় লাগবে এবং হৃদপি-ের জন্যও ভালো হবে।
আগ্রাসী স্বাস্থ্য বিধি থাকলে স্বল্প প্রশিক্ষণ : তিনি বলেন, সপ্তাহে ৬দিন আমি নৌকা চালাতাম তবে এখন আমি তিনদিনে প্রশিক্ষন নেই কারণ ঘাটতি পুনরুদ্ধারের জন্য একটা দিন আপনার দরকার এ সময়ে আপনার পেশী গঠন হয়। সূত্র : টুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ৯৬ বছর বয়সী বিশ্বের প্রবীণ ফিট ব্যক্তির ডায়েট ও ব্যায়ামের কিছু পরামর্শ
আরও পড়ুন