Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ৩ কার্তিক ১৪২৫, ০৭ সফর ১৪৪০ হিজরী

সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের পুলিশের বাধা

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পদযাত্রা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

বিএনপি চেয়ারর্পাসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, সুচিকিৎসা, মামলা প্রত্যাহার ও কারাগারে আদালত স্থাপনের প্রতিবাদে আইনজীবীদের পদযাত্রা ও স্মারকলিপি কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে পুলিশ। বাধার মুখে স্বরাষ্ট্র ও আইন মন্ত্রী বরাবরে দেয়া স্মারক লিপি গ্রহণ করেছেন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্টের মাজার গেটে সমাবেশ শেষে পুলিশের কাছে এ স্মারকলিপি দেন বিএনপি সমর্থক আইনজীবীদের সংগঠন গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন। পুলিশের পক্ষ থেকে আইনজীবীদের একটি প্রতিনিধি দলকে স্মারকলিপি দিতে সচিবালয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হলে শেষ পর্যন্ত সংগঠনের নেতারা তা পুলিশের কাছেই হস্তান্তর করেন।
এর আগে সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গন থেকে মাজার গেটে গেলে আগে থেকে পুলিশ অবস্থান নিয়ে গেট বন্ধ রাখে। সংগঠনের প্রেসিডিয়াম সদস্য আবেদ রাজার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন তৈমুর আলম খন্দকার, মনির হোসেন, নেজামে ইসলাম পার্টির চেয়ারম্যান আব্দুর রকিব, সংগঠনের সদস্য সচিব ও এবিএম রফিকুল হক তালুকদার রাজা, প্রথম যুগ্ম সদস্য সচিব আনিছুর রহমান খান, গোলাম রহমান ভূঁইয়া, ওয়াসিল উদ্দিন বাবু, আইয়ুব আলী আশ্রাফী, মো. শাহজাদা, আরিফা জেসমিন নাহিন, নাসির উদ্দিন খান স¤্রাট, কামাল হোসেন, শামসুল ইসলাম মুকুল, আবদুস সাত্তার, ব্যারিস্টার মামুন, ব্যারিস্টার আবিদ, মুজিবুর রহমান, শামীমা আক্তার বানু, শফিউর রহমান, আবু ইউসুফ, নাজমুল হাসান, টিপু সুলতান, মহিউদ্দিন জুবায়ের, মনির হোসেন, শেখ আবদুস সালাম, মিনা বেগম, মো: ইমদাদ, মুক্তার হোসেন প্রমুখ।
এবিএম রফিকুল হক তালুকদার রাজা অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি, সুচিকিৎসা প্রদান, তার বিরুদ্ধে দায়ের করা সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, কারাগারের আদালত স্থানান্তর ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দেয়ার দাবি জানান। আনিছুর রহমান খান বলেন, খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে অবৈধভাবে আটক রাখা, আইনজীবীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ে এবং নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে সবাইকে রাজপথে সক্রিয় আন্দোলন করার আহ্বান জানান।
মনির হোসেন বলেন, আজকে দেশের গণতন্ত্র, মানুষের ভোটের অধিকার, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা একজনের হাতে বন্দী। সংবিধানকে তছনছ করে মানুষের ভোটের অধিকার ছিনিয়ে দেয়া হয়েছে। আইনজীবীরা সারা দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে হারানো অধিকার পুন:প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।
তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, বর্তমান সরকার যে অগণতান্ত্রিক ও স্বৈরাচার তা আজ পুলিশের বাধার মাধ্যমে আবার প্রমান হলো। আমাদের কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ। এভাবেই মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হচ্ছে। সভাপতির বক্তব্যে আবেদ রাজা বলেন, কোলো কোটের আইনজীবীরা যেদিন রাজপথে নামবে সেদিন কোনো বাধা তাদের আটকে রাখতে পারবেনা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ