Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫, ১৮ রজব ১৪৪০ হিজরী।

নিহত সাংবাদিক সুবর্ণা নদীর সাবেক শ্বশুরসহ ৩জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

পাবনা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৫:৩৯ পিএম

পাবনায় সাংবাদিক সুবর্ণা নদী নিহত হওয়ার পর তার সাবেক শ্বশুর শিল্পপতি আবুল হোসেন, শ্বাশুড়ি এবং সাবেক স্বামী রাজিবের বিরুদ্ধে আরও মামলা দায়ের হয়েছে। এবার মামলা করেছে দুদক ,পাবনা। জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদের কারণে । গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুদক উপ পরিচালক মো: আবু বকর সিদ্দিকের দায়ের করা এজাহার পাবনা সদর থানা গ্রহণ করেছেন। এই মামলায় আবুল হোসেনের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বর্হিভূত ৮ কোটি টাকার উর্ধে সম্পদ ভোগ দখলের অভিযোগ আনা হয়েছে। তাঁর স্ত্রী মোছা: তছলিমা হোসেনের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বর্হিভূত কোটি টাকার এবং পুত্র রাজিবের বিরুদ্ধে একই অভিযোগে এজাহার দায়ের করা হয়েছে। এজাহার সূত্রে জানা যায়, ইন্ড্রাল ইন্ড্রাস্ট্রিজ, শিমলা ডায়গনেস্টিক সেন্টার, মৎস্য খামারসহ বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন। কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের বিপরীতে আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিঃ, পাবনা শাখা থেকে ঋণ গ্রহণ করেছেন। এই ঋণের টাকা বাদ দিয়েও তারা জ্ঞাত আয় বর্হিভূত কোটি কোটি টাকার সম্পদ ভোগ-দখলে রেখেছেন। তাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা এজাহার তদন্ত করে সত্যতা নিশ্চি করলে এ বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত হওয়া যাবে। দুদক উপ-পরিচালক জানিয়েছেন, এই মামলা রুজু করার বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের অনুমতি রয়েছে। সাধারণ মানুষজন বলছেন, আবুল হোসেন এতদিন যাবৎ এত সম্পদ অজ্ঞাতভাবে অর্জন করে চলছিলেন, দুদক তখন মামলা করতে এগিয়ে আসেননি কেন? তাহালে আর সম্পদের পাহাড় গড়ে তুলতে পারতেন না। সুবর্না নদী হত্যা মামলা নিয়ে কাজ করছেন, পুলিশের এমন একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তার মতে এই সব মামলা করার ফলে সাংবাদিক সুবর্ণা নদী হত্যা মামলার এজাহারনামীয় অভিযুক্ত তার সাবেক স্বামী রাজিবকে গ্রেফতার আরও দুরহ হয়ে উঠল। এখনও আরও আত্মগোপনে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত ২জন অভিযুক্ত প্রদত্ত তথ্য হত্যার মোটিভ উদঘাটনে তেমন কাজে আসছে না। রাজিবকে গ্রেফতার করলে হয়তো মোটিভ নিশ্চিত হওয়া যাবে। তারপরও পুলিশ র‌্যাব ও আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী হাত-পা গুটিয়ে বসে নেই। প্রসঙ্গত: গত ২৮ আগস্ট পাবনা প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থিত একটি হোটেলে তাঁর টিভির পাবনা অফিস থেকে বাড়ি ফেরার পর রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে কলিং বেল টিপলে সাংবাদিক সুবর্ণা নদী দরজা খোলার সাথে সাথে দুর্বৃত্তরা তাকে উপর্যুপরি কুপিয়ে চলে যায়। গুরুতর জখম অবস্থায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ