Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫ পৌষ ১৪২৫, ১১ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

মুসলিমদের নিয়েই হিন্দু রাষ্ট্র : আরএসএস

ভারতের আগামী নির্বাচন ঘিরে হিন্দুত্ববাদীরা আরো সক্রিয় হচ্ছে

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

হিন্দুত্ববাদী সংগঠন আরএসএস ভারতের আগামী নির্বাচন ঘিরে আরো সক্রিয় হচ্ছে। রাজধানী নয়াদিল্লিতে মোদির সমালোচক ও সমর্থকদের সামনে বিশেষ বার্তা দেয়ার জন্য তিন দিনব্যাপী একটি বক্তৃতা সভা আয়োজন করে সংস্থাটি, যা রাজধানীতে সংগঠনটির এমনতর প্রথম প্রচারণা কর্মসূচি। সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, ভারতের অন্যতম হিন্দুত্ববাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) প্রধান মোহন ভাগবত বলেছেন, ভারতের মাটিতে মুসলমানদের নিয়েই হবে হিন্দু রাষ্ট্র। গত সোমবার থেকে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির বিজ্ঞান ভবনে চলা আরএসএসের তিন দিনের কনক্লেভে এই ঘোষণা দেন মোহন ভাগবত। ভাগবত বলেন, ‘হিন্দুত্ব মানে অন্তর্নিহিতা এবং মুসলমানদের গ্রহণ করা। যেটা হিন্দুত্বের একটা অংশ। হিন্দু রাষ্ট্র মানে এই নয় যে সেখানে মুসলমানদের কোনো জায়গা হবে না। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। যদি আমরা মুসলমানদের গ্রহণ করতে না পারি, সেটা কখনই হিন্দুত্ব নয়।’ হিন্দুত্ববাদী এই নেতা ভারতের বৈচিত্র্যের পক্ষেও সওয়াল করেন। তিনি বলেন, ‘ভারত বহুত্ববাদের দেশ। তাই আমাদের উচিত এই হিন্দুত্ববাদকে গ্রহণ করা এবং তা উপভোগ করা। সমাজে একতা তৈরি করাই আরএসএসের অন্যতম লক্ষ্য। আমরা বিশ্বাস করি, সমাজ সম্পর্কে প্রত্যেকের আলাদা আলাদা দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে। এক একটি দল এক একটি মতকে ঠিক বলে মনে করে। তাই আমরা কোনো দড়ি টানাটানির মধ্যে যেতে চাই না। আমরা সব সময়ই রাজনীতি থেকে দূরে থাকতে চাই। আমাদের কোনো সক্রিয় সদস্য কোনো রাজনৈতিক দলে কোনো পদ গ্রহণ করবে না। আরএসএসকে আমরা সমাজ সংস্কারের মঞ্চ হিসেবে ব্যবহার করতে চাই।’ সংঘপ্রধান এই কনক্লেভের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার আরো জানিয়ে দেন, কোনো রাজনৈতিক উচ্চাশা নেই রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের। তারা কোনোদিন নির্বাচনে অংশও নেবে না। রয়টার্স, টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর