Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ০১ পৌষ ১৪২৫, ৭ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

সরকারের নির্বাচন দরকার ভোটের দরকার নেই

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১:০৭ এএম

ভোটারবিহীন কারচুপির নির্বাচন ও এই প্রকল্পের মাধ্যমে বিশাল অংকের টাকা হাতিয়ে নিতেই ইভিএম (ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন) কেনা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ইভিএম নিয়ে বিশ্বময় অশান্তি ও প্রতিবাদের ঝড় বইছে। স¤প্রতি ইভিএম এ কারচুপি’র জন্য দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদের নির্বাচনের ভোটই বাতিল হয়ে গেছে। আমেরিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশেও ইভিএম নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে। এরই মধ্যে হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করে ইভিএম কেনার উদ্দেশ্য কি? তাহলে কি আরেকটি ভোটারবিহীন নির্বাচনে কারচুপি’র বন্দোবস্ত এবং লুটপাটের সুযোগ করে দেয়া? অন্যদিকে একনেকে অনুমোদন হওয়ার অনেক আগেই সরকারের দু’জন কর্মকর্তা ইভিএম ক্রয় করতে বিদেশও গেছেন। সবকিছুর আয়োজন দেখে পরিষ্কার নির্বাচনে কারচুপি ও বিশাল অর্থ হাতিয়ে নিতেই ইভিএম কেনা হচ্ছে। গতকাল (বুধবার) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
রিজভী বলেন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলসহ জনসমাজের নানাস্তরের সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান আগামী নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার না করার জন্য নির্বাচন কমিশনের নিকট আপত্তি জানিয়েছিল। প্রধান নির্বাচন কমিশনারও সেই আপত্তিতে সাড়া দিয়ে ইভিএম ব্যবহার হবে না বলে জানিয়েছিলেন। অথচ একনেকে দেড় লাখ ইভিএম সংগ্রহ প্রকল্পের অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী। সরকার জনগণকে ত্যাজ্য করে জালিয়াতির মেশিন ইভিএম এর ওপর নির্ভরশীল হয়েছে। এছাড়া সরকারের আর উপায় নেই। কারণ সরকারের নির্বাচন দরকার কিন্তু ভোট দরকার নেই, সরকারের গণতন্ত্রের মুখোশ দরকার কিন্তু বিরোধী দলের দরকার নেই, সরকারের গণমাধ্যম দরকার কিন্তু মত প্রকাশের স্বাধীনতার দরকার নেই। এই মেশিন ভোট গ্রহণের দিন ব্যবহার হলে ভোটারদের প্রয়োজন হবে না। এসময় সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ