Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

বিসিবির কাঠগড়ায় এসিসি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৬ এএম

শুরু থেকেই এবারের এশিয়া কাপ সূচি নিয়ে চলছে নানা সমালোচনা। টানা ম্যাচ আর ভ্রমণের ক্লান্তির কথা মাথায় রেখে আসরই বয়কটের হুমকি দিয়েছিলো সবচেয়ে সফল ৬বারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। তবে প্রথমে সেটি আমলে না নিয়ে বেশ সাহসীকতার পচিয়ই দিয়েছিলো এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। তবে ভেতরে ভেতরে জ্বলুনিটা যে ছিল তা টের পাওয়া গেল সুপার ফোরে এসে। টুর্নামেন্টের মাঝপথেই হঠাৎ ব্যাপক রদবদল এশিয়া কাপের সুপার ফোরের সূচিতে। সুপার ফোরের নতুন সূচি নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ও পাকিস্তান দলের অধিনায়ক। আচমকা পরিবর্তন আনায় বিস্মিত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও। টুর্নামেন্টের আয়োজক এসিসির কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই বদলের কারণ জানতে চাইবে বিসিবি।

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষে ম্যাচে গতকালই আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলে ফলেছে বাংলাদেশ। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলে সাধারণত ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপের সঙ্গে খেলতে হতো মাশরাফির দলকে। তার আগে সুপার ফোরের চার দল নিশ্চিত হওয়ার পর হুট করেই পরিবর্তন আনা হয়েছে সূচিতে। নতুন এই পরিবর্তনে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ নির্ধারণের আগেই সুপার ফোরে ওঠা চারটি দলের পরিচয় ‘ট্যাগ’ করে দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশকে ‘বি ২’ ও আফগানিস্তানকে ‘বি ১ এবং ‘এ’ গ্রুপে ভারতকে ‘এ ১’ ও পাকিস্তানকে ‘এ ২’ ট্যাগ দিয়ে সেই হিসেবে ম্যাচের সূচি দেওয়া হয়েছে। ফলে প্রচণ্ড গরমে টানা ম্যাচ ও ভেন্যু জটিলতায় পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল।

এই পরিবর্তনের ফলে, সুপার ফোরে তিনটি ম্যাচই ভারত খেলতে পারছে ফাইনালের ভেন্যু দুবাইয়ে। সেখান থেকে আবু ধাবিতে গিয়ে কোনো ম্যাচ খেলতে হচ্ছে না। আগের সূচিতে সব দলেরই একটা ম্যাচ হলেও আবু ধাবিতে ছিল। চার দলের মধ্যে একমাত্র ভারতই পাচ্ছে এই সুবিধা। নতুন সূচি অনুযায়ী, ২১ সেপ্টেম্বর দুবাইয়ে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ বাংলাদেশের। একদিন বিরতি দিয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ আবার আবুধাবিতে। তারপর ২৬ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের বিপক্ষে একই ভেন্যুতে খেলতে নামবে টাইগাররা। টুর্নামেন্টের মাঝপথে এই পরিবর্তন আনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ও পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ।
টুর্নামেন্টের মাঝপথে এই পরিবর্তন আনায় ঝড় উঠেছে সমালোচনার। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানালেন, তারা প্রক্রিয়া মেনে এটির কারণ জানতে চাইবেন, ‘এই ধরনের পরিবর্তনের কথা আমরা আগে থেকে জানতাম না। বিসিবি অবশ্যই আনুষ্ঠানিকভাবে এটির কারণ জানতে চাইবে। যদি টুর্নামেন্ট কমিটির ব্যাখ্যায় আমরা সন্তুষ্ট হতে না পারি, তবে ব্যাপারটি এসিসির বোর্ড সভায় তোলা হবে।’

সুপার ফোরের পরিবর্তিত সূচি
বার তারিখ প্রতিপক্ষ ভেন্যু
শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর ভারত-বাংলাদেশ দুবাই
পাকিস্তান-আফগানিস্তান আবুধাবি
রোববার ২৩ সেপ্টেম্বর ভারত-পাকিস্তান দুবাই
আফগানিস্তান-বাংলাদেশ আবুধাবি
মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ভারত-আফগানিস্তান দুবাই
বুধবার ২৬ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান-বাংলাদেশ আবুধাবি
ফাইনাল ২৮ সেপ্টেম্বর সুপার টু দুবাই



 

Show all comments
  • ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪:৫৮ পিএম says : 0
    এখানে আপনি আপনার মন্তব্য করতে পারেন মোরলের ভয়ে ঠিক রাখাই এসিসির কাজ।
    Total Reply(0) Reply
  • ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৫:০৪ পিএম says : 0
    মোড়লদেরকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষনা করলেই সব শেষ হয়ে যায়?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর