Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ সফর ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

অফিসারদের বাড়ি যেতে মানা কাশ্মীর পুলিশের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৬:০৫ পিএম

কাশ্মির উপত্যকায় জঙ্গি হামলার ঘটনা লেগেই আছে৷ সেনা জওয়ানরা থেকে রেহাই পাচ্ছেন না পুলিশকর্মীরাও৷ উদ্বিগ্ন জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন৷ পরিস্থিতি এতটাই উদ্বেগজনক যে, পুলিশকর্মীদের বাড়ি যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করলেন উপত্যকার প্রশাসনিক কর্তারা৷
সম্প্রতি একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গিগোষ্ঠী৷ ওই ভিডিও বার্তায় পুলিশ ও সেনা জওয়ানদের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়৷ চাকরি না ছাড়লে হত্যা করারও হুমকি দেয় সন্ত্রাসবাদীরা৷ এই ভিডিও বার্তায় প্রকাশ পাওয়ার পরই শুক্রবার সকালে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় তিন পুলিশকর্মীকে৷ নিজের ছেলেকে ছেড়ে দেওয়ার করুণ আর্তি জানান অপহৃত নিসার আহমেদের মা৷ ভিডিও বার্তা তিনি জানিয়েছিলেন, যদি ছেড়ে দেওয়া হয়, তাহলে নিসার পুলিশের চাকরি থেকে ইস্তফা দেবেন৷ কিন্তু তাতেও জঙ্গিদের মন গলেনি৷ বেশ কিছুক্ষণ পর অপহৃত নিসার আহমেদ, কুলদীপ সিং ও ফিরদৌস কুচের দেহ উদ্ধার করা হয়৷ নিহতদের দেহে গুলির আঘাতের চিহ্ন ছিল৷ এই ঘটনায় আতঙ্কিত উপত্যকার পুলিশ প্রশাসন৷ সূত্রের খবর, ছ’জন পুলিশকর্মী চাকরি ছেড়ে বাড়ি ফিরে যাওয়ার চিন্তাভাবনাও করছেন৷ যদিও সেই ঘটনার সত্যতা অস্বীকার করেছে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন৷
উপত্যকার উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের দাবি, জঙ্গিরা নিজেদের পথের কাঁটা সরাতে পুলিশ আধিকারিক ও সেনা জওয়ানদের টার্গেট করেছে৷ সীমান্ত এলাকা বা সেনা ছাউনি থেকে নিরাপত্তার ঘেরাটোপের মধ্যে পুলিশ কর্মী বা জওয়ানদের উপর হামলা চালাতে পারে না৷ তাই তারা বাড়ি ফিরলেই অপহরণের ছক কষে সন্ত্রাসবাদীরা৷ নিসার, কুলদীপ ও ফিরদৌসকে ঠিক একইভাবে টার্গেট করে জঙ্গিরা৷ সন্ত্রাসবাদীদের হাত থেকে বাঁচতে তাই এই উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে বাড়ি না ফেরারই নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা৷ সূত্রঃ এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ