Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ০৮ চৈত্র ১৪২৫, ১৪ রজব ১৪৪০ হিজরী।

বিশ্বের বৃহত্তম স্বাস্থ্য প্রকল্পের সূচনা করলেন মোদি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৮:৩৯ পিএম

প্রকল্পটি ছিল প্রধানমন্ত্রী জন-আরোগ্য যোজনা। কিন্তু তাতে খুব একটা সাড়া মেলেনি। এর আগে দেশের গরিব পরিবারগুলিকে স্বাস্থ্য বিমার আওতায় আনার চেষ্টা করলেও খুব একটা সাড়া মেলেনি। তাই নতুন মোড়কে সূচনা হয়ে গেল আয়ুষ্মাণ ভারত প্রকল্পের। রাঁচিতে প্রকল্পের সূচনা করলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রায় গোটা দেশেই একসঙ্গে প্রকল্পটি চালু হল। সরকারের লক্ষ্য গোটা দেশের অন্তত ১০ কোটি পরিবারের ৬০ কোটি সদস্যকে এই প্রকল্পের আওতায় আনা।
মূলত আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া পরিবারগুলির কঠিন বা জটিল রোগের চিকিৎসায় যাতে কোনও সমস্যা না হয় সেদিকে নজর রেখেই এই প্রকল্পটির কথা ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। ঘোষণা হয়েছিল ১৫ আগস্ট লালকেল্লায় স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে। এবার সূচনা হয়ে গেল রাঁচি থেকে।
রবিবার প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা হলেও প্রকল্পটি গোটা দেশে চালু হবে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর বিজেপির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য পণ্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায়ের জন্মবার্ষিকী থেকে। প্রকল্পের আওতায় আসা পরিবারগুলিকে স্বাস্থ্য বিমার কার্ড করাতে হবে। এই প্রকল্পের অধীনে আসা পরিবারগুলির সদস্যরা হাসপাতালে ভরতি হলে শুধুমাত্র একটি পরিচয়পত্র জমা দিলেই বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়া হবে। শুধু সরকারি হাসপাতালে না কিছু নির্বাচিত বেসরকারি হাসপাতালেও পাওয়া যাবে এই সুবিধা। পরিবার পিছু ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত চিকিৎসার খরচ মিলবে বিনামূল্যে। যদি কোনও পরিবারের সদস্য আগে থেকেই দীর্ঘস্থায়ী রোগে ভোগেন তিনিও এই প্রকল্পের আওতায় পড়বেন। তাঁর চিকিৎসার ক্ষেত্রেও ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত খরচ বহন করবে সরকার। প্রকল্পের মোট ব্যয়ের ৬০ শতাংশ দেবে কেন্দ্র। বাকি ৪০ শতাংশ দিতে হবে রাজ্যকে। এখানেই আপত্তি জানিয়েছে বেশ কিছু রাজ্যের অ-বিজেপি সরকার। তাদের দাবি, কেন্দ্র এত সাড়ম্বরে প্রকল্প আনছে তাঁর ব্যয়ভার রাজ্য কেন বহন করবে। এই অভিযোগ তুলে প্রকল্প বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তেলেঙ্গানা, ওড়িশা, দিল্লি, কেরল এবং পাঞ্জাব সরকার এই প্রকল্প বয়কট করেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মোদি

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৩ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন