Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

কুয়ালালামপুরে শ্রমবাজার নিয়ে বৈঠক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১:০৫ এএম

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার উন্মুক্তকরণে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনার জন্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির নেতৃত্বে ৮ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল গতকাল রাতে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেছেন। প্রতিনিধি দল আজ সোমবার ও আগামীকাল মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার পুত্রাজায়ায় দু’দেশের যৌথ ওয়ার্কিং কমিটির মিটিংয়ে অংশ নিবেন। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র এতথ্য জানিয়েছে।
মালয়েশিয়ায় সফররত প্রতিনিধি দলের অন্যান্য সদস্যরা হচ্ছেন, বিএমইটির মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজা, প্রবাসী মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আহমেদ মনিরুস সালেহীন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক মো.দেলোয়ার হোসেন, প্রবাসী মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব ও মন্ত্রীর পিএস আবুল হাসনাত হুমায়ূন কবীর, উপ-সচিব মো. শাহীন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক মো. মোশাররফ হোসেন ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব সানজীদা শারমিন।
মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য দুদিনব্যাপী ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে নতুন প্রক্রিয়ায় কিভাবে বাংলাদেশ থেকে জনশক্তি রফতানি করা হবে তার বিস্তারিত আলোচনা হবার কথা রয়েছে। দুদেশের বৈঠকে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আর কোনো সিন্ডিকেটের মাধ্যমে নয়; সকল বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সী যাতে সরকার নির্ধারিত ব্যয় কর্মী পাঠাতে পারে সে বিষয়টি বেশি গুরুত্ব পাবে। একাধিক জনশক্তি রফতানিকারক এতথ্য জানিয়েছেন।
আজ সোমবার পুত্রাজায়ায় যৌথ ওয়ার্কিং কমিটির মিটিং শেষে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী মালয়েশিয়ার মানব সম্পদ মন্ত্রীর সাথে বৈঠকে মিলিত হবে। বায়রার মহাসচিব শামীম আহমেদ চৌধুরী নোমান ইনকিলাবকে বলেন, বাংলাদেশ সরকার মালয়েশিয়ার সাথে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটির মিটিং এর উদ্যোগ নেয়ায় আমরা আশাবাদী দেশটির শ্রমবাজারের দ্বার শিগগিরই উন্মুচন হবে। সরকার নির্ধারিত অভিবাসন ব্যয়ে সকল রিক্রুটিং এজেন্সী মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর সুযোগ পাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
সম্প্রতি বায়রার নবনির্বাচিত কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠকে প্রবাসী মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি ঘোষণা দেন যে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার চালুর লক্ষ্যে আলোচনার জন্য আমি মালয়েশিয়ায় যাচ্ছি। সেখানে কর্মী নিয়োগে আর কোনো সিন্ডিকেট নয় ; পূর্বে প্রস্তাবিত (এফডব্লিউসিএমএস) ৯৭৫ রিক্রুটিং এজেন্সী যাতে কর্মী পাঠাতে পারে তার প্রস্তাব তুলে ধরবো।
বায়রার সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব আলহাজ মো.আবুল বাশার বলেন, বিগত দশ সিন্ডিকেটর ন্যায় যাতে মালয়েশিয়ার শ্রবাজার পুনরায় হাত ছাড়া না হয় সে ব্যাপারে উভয় সরকারকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। তিনি বলেন, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড.মাহথির মোহাম্মদ-এর ঘোষণা অনুযায়ী কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে সকল বাংলাদেশী রিক্রুটিং এজেন্সী যাতে সমান সুযোগ পায় তা নিশ্চিত করতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মালয়েশিয়ায়


আরও
আরও পড়ুন