Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আ.লীগও ঐক্যজোটে আসতে পারবে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

বিএনপি, যুক্তফ্রন্ট ও গণফোরামসহ গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের দাবিতে গড়া জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় যোগ দিতে হলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকেও ৫টি দাবি মানতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, এখন যদি আওয়ামী লীগ জাতীয় ঐক্যে আসতে চায়, জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়ে ৫টি দাবি মেনে নিয়েই আসতে হবে। গতকাল (সোমবার) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও দলের যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেলসহ সব রাজনৈতিক বন্দির নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে ‘নাসির উদ্দিন আহাম্মেদ পিন্টু স্মৃতি সংসদ’ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
সরকারকে উদ্দেশ্য করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, তফসিল ঘোষণার আগে পদত্যাগ করতে হবে ও সংসদ ভেঙে দিতে হবে, নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করতে হবে, মেরুদন্ডহীন নির্বাচন কমিশন পরিবর্তন করতে হবে, সেনাবাহিনীকে নির্বাচনের সময় মাঠে রাখতে হবে ও ইভিএম ব্যবহার নিষিদ্ধ করতে হবে। তাহলেই আওয়ামী লীগ জাতীয় ঐক্যে আসতে পারবে।
আওয়ামী লীগকে ছাড়া কিভাবে জাতীয় ঐক্য হয় দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে বিএনপির এই নেতা বলেন, এটা হাস্যকর। কারণ, আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছি বর্তমান স্বৈরাচারী সরকারের পতনের জন্য। আমরা সরকারে বিরুদ্ধে কোনও ষড়যন্ত্র করছি না। জনগণ তাদের ভোটের অধিকার আদায়ের এবং একটি অবাধ সুষ্ঠু অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের লক্ষ্যে কয়েকটি বিষয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গেছে। আমরাও তাদের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি এবং তা প্রকাশ্যেই হয়েছি।
ঐক্য গঠনের ফলে সরকার আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন দাবি করে তিনি বলেন, দেশের সব রাজনীতিক দল, সুশীল সমাজ, যুবক-শিশু-কিশোর, পেশাজীবী- সবাই ঐক্যবদ্ধ হওয়ায় সরকার আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। কেননা, জাতীয় ঐক্য মোকাবিলা করার শক্তি তাদের নেই।
সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে মোশাররফ হোসেন বলেন, দেশের এই সংকট থেকে মুক্তির একমাত্র পথ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন। সুষ্ঠু নির্বাচন শুধু আমরা চাই তা নয়, আমাদের বন্ধুরাষ্ট্রগুলোও তা চায়। এর আগে যে নির্বাচনগুলো হয়েছে তার কোনোটাই সুষ্ঠু হয়নি। খালেদা জিয়াকে ছাড়া কোনও নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না। দেশে আগামীতে যদি কোনও নির্বাচন হয়, মুক্ত খালেদা জিয়াকে নিয়েই নির্বাচন হবে। অন্যথায় কোনও নির্বাচন হবে না।
নাসির উদ্দিন আহাম্মেদ পিন্টু স্মৃতি সংসদ-এর সভাপতি সাইদ হাসান মিন্টুর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, এ্যাড. নিপুন রায় চৌধুরী প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ