Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫, ১১ সফর ১৪৪০ হিজরী

মুস্তাফিজের অন্যতম ‘সেরা মুহূর্ত’

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

শেষ বলটা করার সাথে সাথেই দুই বাহু প্রসারিত করে দাঁড়িয়ে পড়লেন। মুখে তার সেই চিরচেনা প্রাণখোলা আসি। অন্য পাশে বুনো উল্লাসে ফেটে পড়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা, ছুটে আসছেন তাকে আলিঙ্গনে বাঁধতে। খানিক পরেই অন্য সবার উদযাপনের মধ্যমণি মুস্তাফিজুর রহমান, রোমাঞ্চকর ম্যাচটা তো তার জন্যই জিতল বাংলাদেশ। এমন একটা জয়ের পর মাশরাফি-মাহমুদউল্লাহ সবাই মেতেছেন মুস্তাফিজ বন্দনায়। আর কাটার মাস্টার নিজে বলেছেন, এটা তার ক্যারিয়ারেরই অন্যতম ‘সেরা মুহূর্ত’।
শেষ ওভারে জয়ের জন্য আফগানিস্তানের দরকার ছিল ৮ রান। স্ট্রাইকে রশিদ খান, আগের ম্যাচেই যার ব্যাটে কচুকাটা হয়েছে বাংলাদেশ। অন্য পাশে সামিউল্লাহ শেনওয়ারীর ব্যাটও চলছে সমানে। প্রথম বলে দুই নিলেন রশিদ, পরের বলেই ফিরতি ক্যাচ দিলেন মোস্তাফিজকে। পরের তিন বলে হলো দুই রান, জয়ের জন্য আফগানদের শেষ বলে দরকার ৪ রান। মোস্তাফিজের বলে ব্যাটই লাগাতে পারলেন না শেনওয়ারী, বলতে গেলে মুঠো গলে বেরিয়ে যাওয়া ম্যাচটা আবার হাতে নিয়ে এলেন মুস্তাফিজ।
ম্যাচ শেষে মাশরাফি সরাসরিই বলেছেন, ‘মুস্তাফিজ একজন জাদুকর’। এমন একটা জয়ের জন্য কৃতিত্বটা তাকে সবার আগে দিয়েছেন অধিনায়ক। ম্যাচসেরা মাহমুদউল্লাহও ফিজের নাম বলেছেন সবার আগে, পিঠ চাপড়ে দিচ্ছেন তার। আর মুস্তাফিজ নিজে ক্যামেরার সামনে কিছু বলেননি। তবে ফেসবুক-টুইটারের পোস্টে লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, এটা আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা মুহূর্ত। অনুভূতিটা আসলে বলে বোঝানো যাবে না। সবার ভালোবাসা পেয়ে আমি খুবই আবেগ আপ্লুত। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পাশেই থাকুন। সবাইকে ধন্যবাদ।’
এই বছর নিদাহাস ট্রফির ফাইনালেও একটা ম্যাচ একাই জিতিয়ে দিচ্ছিলেন প্রায়। শেষ বলে গিয়ে দীনেশ কার্তিক জয় এনে দিয়েছেন ভারতকে। তবে এবার মোস্তাফিজ নিজেই শেষ ওভারের ঝলকটা দেখিয়েছেন। এর মধ্যে গরমের জন্য ক্র্যাম্প হয়েছে, ঠিকমতো দৌড়াতেও পারেননি। পুরো ১০ ওভারও সেজন্য তাকে দিয়ে করাননি মাশরাফি। কিন্তু মুস্তাফিজ দেখিয়ে দিয়েছেন, জাদুকর ভেলকি দেখাবে শেষ সময়েই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর