Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

১১ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেছে চবি কর্তৃপক্ষ

চবি সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

পৃথক পৃথক ঘটনায় বিভিন্ন মেয়াদে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ। গতকাল মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে সংবাদ সম্মেলনে প্রক্টর মো. আলী আজগর চৌধুরী সাংবাদিকদের এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

চলতি মাসের দশ তারিখে এক সাংবাদিককে মারধরের ঘটনায় ইংরেজি বিভাগের মাহমুদুল হাসান রুপককে এক বছরে জন্য এবং একই ঘটনায় ইতিহাস বিভাগের ছাব্বির হোসেন , একই বিভাগের রাজিবুল আলম ও মার্কেটিং বিভাগের তৈমুর হোসেনকে দুই মাসের জন্য বহিস্কার করা হয়েছে।

একই মাসের ৯ তারিখে বিশ্ববিদ্যালয়ের লেডিস ঝুপড়িতে শান্তুনু নাথ ও সালাউদ্দিন নামের দুই শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় চার জনকে দুই মাসের জন্য বহিষ্কার করেছে। তারা হলেন ইতিহাস বিভাগের এমাদ উদ্দিন, লোকপ্রশাসন বিভাগের ইব্রাহিম খলিল, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের লিপটন দাশ এবং ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সালাউদ্দিন সাজ্জাদ।

জুলাই মাসের ৩০ তারিখে শাহ্ আমানাত হলের আবাসিক শিক্ষার্থীর কক্ষ থেকে ল্যাপটপ চুরির ঘটনায় দুইজনকে ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে । বহিষ্কৃতরা হলেন, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের কাউসার ইবনে কাশেম এবং সুমুদ্র বিজ্ঞান বিভাগের রিফাত হাসান।

মার্চ মাসের ২৯ তারিখে সোহরাওয়ার্দী হলের আবাসিক শিক্ষার্থীকে মারধর ও এক শিক্ষার্থীসহ অবিভাবককে মারধরের ঘটনায় আধুনিক ভাষা ইসস্টিটিউটের ছামদানি রহমানকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

আজ থেকে তাদের এ বহিষ্কার আদেশ কার্যকর হবে। বহিষ্কার থাকাকালীন তারা কোন একাডেমিক কাজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে অবস্থান করতে পারবে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বহিষ্কার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ