Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ সফর ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

রফতানিকারকদের রিফান্ডের শর্ত শিথিল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:৩১ এএম

রফতানিকারকদের সুবিধার্থে রিফান্ডের (ডিউটি ড্র ব্যাক বা শুল্ক প্রত্যর্পণ) শর্ত শিথিল করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এর ফলে ২০১৯ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত পণ্য রফতানির বিপরীতে পিআরসি, ইএক্সপি ও বৈদেশিক মুদ্রা প্রত্যাবাসনের কাগজপত্র জমা দিয়ে রিফান্ড নেয়া যাবে। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি বিশেষ আদেশ জারি করা হয়েছে। শুল্ক প্রত্যর্পণের ক্ষেত্রে ২০১১ সালের ৩০ মার্চ এনবিআর একটি আদেশ জারি করে। যাতে শুল্ক রেয়াত ও প্রত্যর্পণ অধিদফতরকে (ডেডো) রিফান্ড দেয়ার পূর্বে অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেম থেকে রফতানি পণ্য চালানের কায়িক পরীক্ষার তথ্য যাচাই-বাছাই করতে বলা হয়।
মূলত রিফান্ড জালিয়াতি রোধে এই আদেশ জারি করা হয়েছিল। কিন্তু এ আদেশ বাস্তবায়ন করতে গিয়ে বেশ জটিলতা দেখা দেয়।
কাস্টমস হাউজ অনেক সময় অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমের ইনফরমেশন বক্সে কায়িক পরীক্ষার তথ্য এন্ট্রি দেয় না। আবার সব কাস্টমস হাউজ ও স্থল বন্দরে রফতানির অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেম পুরোপুরিভাবে কার্যকরও হয়নি। এসব কারণে রফতানিকারকদের রিফান্ড পেতে জটিলতায় পড়তে হয়। রফতানির সপক্ষে সব কাগজপত্র দাখিল করেও শুধুমাত্র কায়িক পরীক্ষার তথ্য এন্ট্রি না দেয়ায় তারা রিফান্ড পেতেন না।
এনবিআর’র এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, এনবিআর সব সময় রফতানিকে উৎসাহিত করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় রিফান্ড প্রক্রিয়া সহজ করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ