Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সালাহউদ্দিনকে ফিরে পেতে ব্যাকুল কক্সবাজারবাসী

জাকের উল্লাহ চকোরী, কক্সবাজার থেকে | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

কক্সবাজার জেলার অত্যন্ত জনপ্রিয় নেতা (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য, সালাহ উদ্দিন আহমদ বেকসুর খালাস পেয়ে দেশে ফিরবেন এ আশায় উৎফুল্ল ছিলেন কক্সবাজার জেলাবাসী।
তার বিচারাধীন মামলাটি রায় প্রদানের তারিখ ছিল গতকাল শুক্রবার। কিন্তু মামলার যাবতীয় কার্যক্রম অসম্পূর্ণ থাকায় তা পঞ্চমবারের মতো আবারো পিছিয়ে আগামী ১৫ নভেম্বর পুনরায় দিন ধার্য করায় হতাশ হয়ে পড়েছেন তার অনুসারীরা। এদিকে তার অনুপস্থিতির কারণে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হবেন তার সহধর্মিণী অ্যাড.হাসিনা আহমদ।
উল্লেখ্য, ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলং শহরে অবস্থানরত সালাহউদ্দিন আহমদের বিরুদ্ধে ভারতে অনুপ্রবেশের অভিযোগে ইষ্ট খাসিয়া হিল জজ কোর্টে এই মামলা দায়ের করা হয়।
আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মিঃ ডিজি খার সিং ২৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার তার এজলাসে উঠে মামলাটির রায় এখনো পুরোপুরি প্রস্তুত করতে পারেননি বলে জানান। তাই রায়ের জন্য বিচারক এই নতুন তারিখ ধার্য করেন। এ সময় আদালতে সালাহউদ্দিন আহামদ, তার আইনজীবী মিঃ এস পি মোহন্ত, সালাহউদ্দিন আহমদের ব্যক্তিগত সহকারী, রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
সালাহউদ্দিন আহমদের আইনজীবী মিঃ এসপি মোহন্ত বলেছেন, প্রায় ৬ মাস আগে মামলাটির রায় পূর্ববর্তী সকল আইনী কার্যক্রম সম্পন্ন হলেও পর পর ৫ বার রায় ঘোষনার তারিখ পিছিয়ে যাওয়া দুঃখজনক। তিনি বলেন, সালাহউদ্দিন আহমদ স্বেচ্চায় ভারতে অনুপ্রবশ করেননি, তাকে অপহরনকারীরা জোর করে চোখ বাঁধা অবস্থায় শিলং গলফ লিংক মাঠে এনে রেখে দিয়েছে, সেটা আদালতে সালাহউদ্দিন আহমদের আইনজীরীরা সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন।
মিঃ এসপি মোহন্ত জানান, মামলা শুনানির সময় আদালতে তারা এ সংক্রান্ত জাতিসংঘের কার্যবিবরণী, আমেরিকার মানবাধিকার রিপোর্ট, আ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ও হিউম্যান রাইটস ওয়াচের রিপোর্ট, যুক্তরাজ্য পার্লামেন্টের আর্লিডে মোশান, ভারতের উচ্চ আদালতের রেফারেন্স, বাংলাদেশের উচ্চ আদালতের আদেশসহ আন্তজার্তিক বিভিন্ন আইন ও নজির আদালতে উপস্থাপন করে আদালতকে সন্তুষ্ট করেছেন। এমনকি মেঘালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা স্বয়ং তার সাক্ষ্যদানকালে সালাহউদ্দিন আহমদ একজন সাবেক মন্ত্রী, তিনি কখনই ভিন্ন দেশে অনুপ্রবেশ করার লোক নয় বলে সাক্ষ্য দিয়েছেন
আইনজীবীর দৃঢ় বিশ্বাস, একটু দেরিতে রায় হলেও এ মামলায় সালাহউদ্দিন আহমদ বেকসুর খালাস পাবেন।
এদিকে, সালাহউদ্দিন আহমদের প্রেস সচিব মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম হেলালী জানান, মামলাটি নিষ্পত্তিপূর্বক সমস্ত আইনি প্রক্রিয়া শেষ করে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশে আসার জন্য তিনি ব্যাকুল হয়ে উঠেছেন। এ প্রতিবেদকের কাছে মুঠোফোনে শিলং এর আদালতে ন্যায়, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু বিচারের ব্যাপারে সালাহউদ্দিন আহমদ খুবই ইতিবাচক ধারণা পোষণ করেছেন। তাই শিলং আদালতে তিনি ন্যায় বিচার পেয়ে শীঘ্রই মুক্ত হয়ে মাতৃভূমি বাংলাদেশে ফিরতে পারবেন বলে দৃঢ় আশাবাদী। তিনি দেশবাসীর কাছে এজন্য আন্তরিকভাবে দোয়া চেয়েছেন।
কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি শাহাজাহান চৌধুরী বলেছেন, আমাদের প্রিয়নেতা আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে যথাসময়ে দেশে ফিরবেন।
কক্সবাজার জেলার ৪টি আসন আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে ২০ দলীয় জোট যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে আমরা অবশ্যই বিজয়ী হবো।



 

Show all comments
  • Zia ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১:২০ পিএম says : 0
    আশাকরি ইনশাআল্লাহ মুক্তী পাবেন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ