Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

‘উত্তর কোরিয়া একতরফাভাবে পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি ত্যাগ করবে না’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১:৩১ পিএম

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং-হো বলেছেন, ওয়াশিংটন যতদিন তার দেশের বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রাখবে ততদিন পিয়ংইয়ং ‘কোন অবস্থাতেই’ একতরফাভাবে নিজের পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি পরিত্যাগ করবে না। তিনি আরো বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখে মার্কিন সরকার নিজের প্রতি পিয়ংইয়ং-এর অবিশ্বাস আরো গভীর করে তুলছে। এ খবর দিয়েছে পার্সটুডে।

শনিবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম বার্ষিক অধিবেশনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এসব কথা বলেন তিনি। উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমেরিকার প্রতি গভীর অবিশ্বাসের কারণে আমরা জাতীয় নিরাপত্তার প্রশ্নে কোনো ছাড় দেব না এবং আমরা আগে আমাদেরকে নিরস্ত্র করব না।’

সাম্প্রতিক সময়ে উত্তর কোরিয়া ‘উল্লেখযোগ্য মাত্রায়’ সদিচ্ছার পরিচয় দিয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। রি বলেন, পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা স্থগিত রাখা, পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়া এবং পরমাণু অস্ত্র ও প্রযুক্তির বিস্তার না ঘটানোর প্রতিশ্রুতি দেয়ার মতো ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছে পিয়ংইয়ং। ‘কিন্তু এর বিনিময়ে আমেরিকার পক্ষ থেকে কোনো পাল্টা পদক্ষেপ দেখতে পায়নি উত্তর কোরিয়া।’

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন গত ১২ জুন সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হন। সেখানে তিনি কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার মৌখিক প্রতিশ্রুতি দেন। তবে এর পরিবর্তে আমেরিকাকে উত্তর কারিয়ার বিরুদ্ধে বিদ্বেষী আচরণ পরিহার করার আহ্বান জানান। ওই সাক্ষাতের আগে কিম বলতেন, সম্ভাব্য মার্কিন আগ্রাসন প্রতিহত করার লক্ষ্যে তার দেশ পরমাণু অস্ত্র তৈরি করেছে।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমন সময় তার দেশের ওপর আরোপিত মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বক্তব্য দিলেন যখন ওয়াশিংটন একাধিকবার বলেছে, পিয়ংইয়ং পরমাণু অস্ত্র পুরোপুরি ধ্বংস করার আগ পর্যন্ত দেশটির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে না



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উত্তর কোরিয়া

২৭ এপ্রিল, ২০১৯
১০ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন