Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৭ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

জনগণের আকাঙ্ক্ষাই রাজনীতিতে ফেরায় অনুপ্রাণিত করে : মাহাথির

আমার মস্তিষ্ক সর্বদা চিন্তা করত কিভাবে সরকার পরিবর্তন করা যায়

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৪ এএম | আপডেট : ১:৫৭ পিএম, ৮ অক্টোবর, ২০১৮

প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মুহাম্মদ বলেছেন, ‘পূর্ববর্তী প্রধানমন্ত্রীর সাথে আমার একটি বৃহৎ দ্বন্দ্ব ছিল। তাই সর্বদা আমার মস্তিষ্ক সক্রিয়ভাবে চিন্তা করত কিভাবে এবং কোন উপায়ে সরকারকে পরিবর্তন করা যায়।’ তিনি আরো বলেন, ‘যখন আপনি চিন্তা করতে থাকেন, মস্তিষ্ক ব্যবহার করেন, এতে আপনার স্মৃতি হারাবে না, বৃদ্ধদের মধ্যে প্রায়ই তা আপনি দেখতে পান।’ শনিবার ‘বয়স্ক শিক্ষা এবং প্রযুক্তি : জীবন উন্নয়নে সম্প্রদায়ের সংযুক্তি’ শীর্ষক একটি কনফারেন্স উদ্বধোনকালে ড. মাহাথির এসব কথা বলেন। ৯৩ বছর বয়সে তিনি বিশ্বের বয়োজ্যেষ্ঠ প্রধানমন্ত্রি। ড. মাহাথির বলেন, পূর্ববর্তী সরকার পরিবর্তনে জনগণের আকাঙ্ক্ষাই তাকে অবসরের পর রাজনীতিতে ফিরে আসার ক্ষেত্রে অনুপ্রাণিত করেছে। তিনি বলেন ‘আমার অবসরের দুই সপ্তাহ পর অনেকে আমাকে দেখতে আসেন। তারা আমার সাফল্যে সুখি ছিলনা। তারা আমাকে বলেন, আপনি কি এ ব্যাপারে কিছু করতে পারেন?’ ‘সুতরাং আমি কিছু করতে শুরু করলাম। আমি অনেক সক্রিয় হলাম। অবশ্যই যখন সেই উত্তরসূরী ঘটনাক্রমে ত্যাগ করল, আমার পরে আমাদের এক দ্বিতীয় ব্যক্তি ছিল উত্তরসূরী হতে।’ উক্ত সম্মেলনে ড. মাহাথির জোর দিয়ে বলেন, বয়স্ক প্রজন্মকে স্বাস্থ্যবান থাকার জন্য অবসরের পর সক্রিয় থাকতে বলেন। তিনি বলেন, ‘এটা শুধু মাংসপেশীতে নয়, মস্তিষ্কে সস্ক্রিয় থাকতে হবে। যদি আপনি আপনার মস্তিস্ককে ব্যবহার না করেন তবে তা অচল হয়ে যাবে।’ ড. মাহাথির প্রথম অবসরে যান ২০০৩ সালে এবং ক্ষমতা হস্তান্তর করেন পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী আবদুল্লাহ বাদাউই এর নিকট। আব্দুল্লাহ, যিনি ড. মাহাথিরের দ্বারা জনসম্মুখে সমালোচিত হয়েছিলেন এবং ২০০৯ সালের সাধারণ নির্বাচনে ভরাডুবির পর পদত্যাগ করেন। ‘দুর্ভাগ্যবশত জনগণ আবার আমাকে দেখতে এসে বলল দয়া করে কিছু করুন। প্রথমে আমি পরামর্শ দেয়ার চেষ্টা করতাম কিন্তু এতে কাজ হত না। তখন আমি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলাম আমি এই লোককে নেতা হিসেবে দিতে পারি না, তাই আমি এই দল (ইউএমএনও) ত্যাগ করলাম। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মাহাথির


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ