Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

রোহিঙ্গা সঙ্কট দীর্ঘদিনের সময়ের প্রয়োজন : সু চি

নোবেল পুরস্কার বাতিল নিয়ে আমার মাথা ব্যথা নেই

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

রোহিঙ্গা সঙ্কটকে দীর্ঘদিনের সমস্যা উল্লেখ করে, খুব শিগগিরই এর সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়, আরো সময়ের প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি। শনিবার জাপানি সংবাদমাধ্যম এনএইচকেতে এক সাক্ষাৎকারে তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগ করলেও রাখাইন পরিস্থিতি বাস্তবিক অর্থ ভিন্ন। এদিকে, জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা বলেছে, রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনের জন্য রাখাইনে উপযুক্ত পরিবেশ এখনো তৈরি হয়নি। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বিশ্ব সম্প্রদায় মিয়ানমারকে অব্যাহতভাবে তাগাদা দিয়ে আসলেও এতে যেন দেশটির কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই। এবার স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি বললেন, রাখাইনের অধিবাসীদের দ্রুত ফেরত নেয়া সম্ভব নয়। রাখাইনসহ মিয়ানমারে চলমান বিভিন্ন সঙ্কট নিয়ে জাপানি গণমাধ্যম এনএইচকেতে সাক্ষাৎকারে সমস্যা বুঝে কথা বলতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্‌বান জানান। সু চি বলেন, নোবেলের মতো পুরস্কার বা সম্মাননা নিয়ে আমার মাথা ব্যথা নেই। পুরস্কার চেয়ে বন্ধুত্বটাই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। বন্ধু রাষ্ট্রগুলোর উচিত ছিল আমাদের সমস্যা বুঝে কথা বলা। আমি মনে করি বন্ধুত্ব মানেই পারস্পরিক বোঝাপড়া ও শ্রদ্ধার ব্যাপার। কিন্তু যারা পরিস্থিতি না বুঝে আমাদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করায়, তারা আমাদের বন্ধু হতে পারে না। সু চি বলেন, অনেকেই আছেন যারা রাখাইনের বাস্তবতা বুঝতে চাইছেন না। সবাই যেমনটা মনে করছেন সেখানকার পরিস্থিতি আসলে তেমন না। দ্রুত এই সঙ্কট সমাধানের জন্য সবাই তাগাদা দিচ্ছে। কিন্তু আমরা চাইলেই এত দ্রুত এ সমস্যার সমাধান করতে পারবো না। এটা দীর্ঘমেয়াদী সমস্যা। এনএইচকে।



 

Show all comments
  • sats1971 ৮ অক্টোবর, ২০১৮, ৫:৩৪ পিএম says : 0
    Mayanmar and Bangladesh very close boarder friend to each others .Present Govt also very kind hearted to the Mayanmar and have tried to keep friendship in the world but Mayanmar have many problems and tried slowly. Our govt given enough time to solve the human rights problems and back to close friendship with Bangladesh.Mayanmar must leave the criminal idea and live honest life like our president. ................... At first remove democracy from the mayanmar military rules otherwise not possible to Royinga problems back.Now Suci take councelling with the Pm sk Hasina than it is good for both country.Advice councelling of Sk Hasina is the best helpful for Suchi and Democracy of Mayanmar . How to make a peace bridge learn from our govt.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা


আরও
আরও পড়ুন