Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০১ আষাঢ় ১৪২৮, ০৩ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

খালেদা জিয়া-তারেকের নাম না বলায় আমার ফাঁসির আদেশ

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবর

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

২১শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় শুনার পর মৃত্যুদন্ড আদেশ প্রাপ্ত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, এই মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানের নাম না বলায় আমার বিরুদ্ধে ফাঁসির আদেশ দেয়া হয়েছে। আমি আল্লাহ’র কাছে এর বিচার চাইছি।
গতকাল নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে বিশেষ আদালতে রায় ঘোষণার আগে লুৎফুজ্জামান বাবরকে কড়া নিরাপত্তায় আদালতে নিয়ে আসা হয়। রায়ের সময় তিনি কাটগড়ায় দাঁড়িয়ে ছিলেন। রায়ের পর তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, এই মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেকের নাম না বলায় আমাকে জড়ানো হয়েছে। আমাকে মিথ্যা অভিযোগে সাজা দেয়া হয়েছে। যারা মিথ্যা অভিযোগে আমাকে সাজা দিয়েছে তাদের বিচার আল্লাহ একদিন করবেন।
বাবর বলেন, তাহাজ্জতের নামাজ পড়ে আল্লাহর কাছে ২১ আগস্ট হামলার বিচার চেয়েছিলাম। এটা একটা ঘৃণ্য অপরাধ। সঠিক বিচার হয়নি। আমি এর সঠিক বিচার চেয়েছিলাম। সে সময় বাবর আরো বলেন, আমি এই হামলায় জড়িত না। মিথ্যা মামলায় আমাকে সাজা দেওয়া হয়েছে। এটা রাজনৈতিক।
উল্লেখ ২১আগষ্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৯ জনকে মৃত্যুদন্ড ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন। মামলার অন্য আসামিদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রেনেড হামলা

২২ আগস্ট, ২০২০
২১ আগস্ট, ২০১৯
২৮ নভেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন