Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ২ কার্তিক ১৪২৫, ০৬ সফর ১৪৪০ হিজরী

সাবেক তিন পুলিশ প্রধানের সাজা

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় দন্ডিতদের মধ্যে রয়েছেন পুলিশের তিন জন সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি)। কর্তব্যে অবহেলাসহ নানা অভিযোগে দুই জনের দুই বছর এবং এক জনের তিন বছরের কারাদন্ড এবং ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত। গতকাল বুধবার ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল এর বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন যে ৪৯ জনের সাজা ঘোষণা করেন তাদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক আইজিপি শহুদুল হক, মোহাম্মদ আশরাফুল হুদা ও খোদাবক্স চৌধুরী।
এদের মধ্যে পুলিশের তিন জন সাবেক প্রধানের সাজা বাহিনীটি ইতিহাসে নজিরবিহীন। আর বিষয়টি নিয়ে পুলিশে নানা প্রতিক্রিয়াও রয়েছে। যদিও বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যারা সাজা পেয়েছেন তারা ব্যক্তিগত দায়ে দন্ডি হয়েছেন। এই দায় পুলিশের হতে পারে না।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশ সদরদফতরের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, কোনও ব্যক্তির দায় সমগ্র পুলিশ বাহিনী নিতে পারে না। কেউ অপরাধ করলে তার বিচার হবেই। ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার সময় পুলিশ প্রধান ছিলেন শহুদুল হক। বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন তিনি। তাকে দুই বছরের কারাদন্ড হয়েছে। গ্রেনেড হামলা হওয়ার পর শহুদলের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে রাষ্ট্রপক্ষ। কারণ হামলার পর ঘটনাস্থল একবারও পরিদর্শন করেননি সাবেক এই পুলিশ প্রধান। তিনি এক সময় সেনা কর্মকর্তা ছিলেন। পরে তাকে পুলিশ বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত করেন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। ২০০১ সালে বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর শহুদুলকে পুলিশ প্রধানের পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়। গ্রেনেড হামলার সময় ঢাকার মহানগর পুলিশের কমিশনারের দায়িত্বে ছিলেন আশরাফুল হুদা। তাকে দেয়া হয়েছে দুই বছরের কারাদন্ড। ২০০৪ সালের ১৫ ডিসেম্বর থেকে ২০০৫ সালের ৭ এপ্রিল পর্যন্ত অর্থাৎ চার মাসেরও কম সময় পুলিশ প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। এছাড়া সাবেক পুলিশ প্রধান খোদাবক্স চৌধুরীর তিন বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। তিনি গ্রেনেড হামলার সময় অতিরিক্ত পুলিশ প্রধানের দায়িত্ব পালন করছিলেন। পরে তিনি পুলিশ বাহিনীর প্রধান হন।



 

Show all comments
  • জলিল ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ১:৩৫ এএম says : 2
    আমরা সাধারণ মানুষ তাই আদালতের রায় নিয়ে কথা বলা ঠিক হবে না।
    Total Reply(0) Reply
  • মহসিন আলী ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ৩:০৪ পিএম says : 0
    অপরাধী যে-ই হোক না কেন তার বিচার হওয়া দরকার।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ