Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ২ কার্তিক ১৪২৫, ০৬ সফর ১৪৪০ হিজরী

দল নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে সমাবেশ ও মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০১৮, ৮:২৬ পিএম

দল নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবী সমাবেশ ও মিছিল করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)। সমাবেশে তারা ডিজিটাল আইন বাতিলেরও দাবী জানায়।

আজ শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডা. এম.এ সামাদের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শামসুল আলম, জাতীয় বিপ্লবী পার্টির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, মার্কসবাদী ছাত্র মঞ্চের সভাপতি মামুন খান, মার্কসবাদী যুব মঞ্চের সভাপতি সোহেল সামাদ, মার্কসবাদী শ্রমিক মঞ্চের সভাপতি সুমন, মার্কসবাদী নারী মঞ্চের সভাপতি জিন্নাত আরা প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে ডা. এম.এ সামাদ বলেন, মহাজোট সরকার জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারসমূহ রুদ্ধ করে দমন-পীড়নের পথে স্বৈরতান্ত্রিক ফ্যাসিবাদী শাসন অব্যাহত রেখেছে। উন্নয়নের নামে লুটপাট, দুর্নীতি আর দুঃশাসনে দেশের মানুষ দিশেহারা। বিচার বিভাগ, প্রশাসন, নির্বাচন কমিশন, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানসমূহ চুড়ান্ত দলীয়করণের শিকার।

তিনি বলেন, আগামী অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হওয়ার কথা। অথচ দেশে এখন পর্যন্ত অবাধ নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য জাতীয় নির্বাচনের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মত আরেকটি একতরফা পাতানো নির্বাচনের ক্ষেত্র প্রস্তুত করা হচ্ছে। অধিকাংশ রাজনৈতিক দলের আপত্তিকে অগ্রাহ্য করে নির্বাচনে সরকারি দলকে ডিজিটাল কারচুপির সুযোগ করে দিতে নির্বাচন কমিশন আরপিও-তে বিতর্কিত ইভিএম ব্যবস্থা সংযুক্ত করার প্রস্তাব দিয়েছে। বিগত ৪৭ বছরের অভিজ্ঞতা হলো দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি।

সামাদ বলেন, জনগণের সমর্থনহীন বর্তমান জাতীয় সংসদ বহাল রেখে সকল দল ও জনগণের জন্য নির্বাচনের সমান সুযোগ তৈরী হবে না। তাই আমাদের সুনির্দিষ্ট দাবি- তফসিল ঘোষণার পূর্বে বর্তমান সরকারকে পদত্যাগ করে সবদলের সাথে আলোচনার ভিত্তিতে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ তদারকি সরকার গঠন করতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ