Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আমনে পোকার আক্রমণে দিশেহারা কৃষক

পীরগাছা (রংপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

রংপুরের পীরগাছায় অনাবৃষ্টিসহ আমন ক্ষেতে পোকার আক্রমণ ও রোগ-বালাইয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন কৃষক। বৃষ্টি না হলেও সেচ দিয়েই আমনের আবাদ করছেন তারা। আশায় বুক বেঁধেছিলেন বাম্পার ফলনের। কিন্তু ক্ষেতের ধানে হঠাৎ করে খোলপচা ও গোড়াপচা রোগের পাশাপাশি মাজরা পোকা ও পাতা মোড়ানো পোকার আক্রমণ দেখা দিয়েছে। বাজারের কীটনাশক দিয়েও এসব পোকার আক্রমণ ও রোগ ঠেকাতে পারছেন না কৃষকরা। ফলে আমন ধানের ফলন লক্ষ্যমাত্রার অর্ধেকেরও কম হওয়ার আশঙ্কা করছেন চাষিরা।

উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে ২১ হাজার ৭৮৫ হেক্টর জমিতে আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। মৌসুমের শুরু থেকেই খরার কবলে পরে কৃষক। ফলে বাধ্য হয়ে অনেকে জমিতে সেচ দিয়ে আমন চারা রোপন করেন। পরবর্তীতেও কোনো বৃষ্টি না হওয়ায় এবং তীব্র খরা দেখা দেওয়ায় আমনের আবাদ ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। খরা মোকাবিলায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কৃষকেরা ইতিমধ্যে গভীর ও অগভীর নলকূপ থেকে জমিতে পানি দিচ্ছেন। এ ছাড়া বরেন্দ্র কর্তৃপক্ষ তাদের পরিচালিত গভীর নলক‚প দিয়ে কৃষকের জমিতে সেচ দিচ্ছে।

উপজেলার কৈকুড়ী ইউনিয়নের নজর মামুদ গ্রামের কৃষক আকবর আলী জানান, বৃষ্টিহীন আশ্বিনের খরতাপে তাঁদের এলাকায় প্রায় ৬০-৭০ ভাগ আমন খেতে খোলপচা রোগ ও মাজরা পোকার আক্রমণ দেখা দিয়েছে। এখন ধানগাছ বেড়ে উঠছে; ঠিক এই সময় আমনের খেতে ব্যাপক হারে খোলপচা রোগ ও মাজরা পোকার আক্রমণ দেখা দিয়েছে। পোকার আক্রমণ ঠেকাতে কৃষকেরা কীটনাশক প্রয়োগ করছেন। খোলপচা রোগে ধানের চারাগাছ হলুদ হয়ে গেছে। কীটনাশক প্রয়োগ করেও কোনো কাজ হচ্ছে না।

কান্দি ইউনিয়নের বালার দীঘি গ্রামের কৃষক আনছার আলী জানান, খোলপচা রোগে জমির সবুজ ধানগাছ হলুুদ বর্ণ ধারণ করেছে। সবচেয়ে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন বর্গাচাষিরা। জমিতে চারা লাগানোর পর ধান গাছ বেড়ে ওঠার সময় হঠাৎ ব্যাপক হারে খোলপচা রোগ ও পোকার আক্রমণ দেখা দেয়। বাজার থেকে কীটনাশক এনে জমিতে ছিটিয়েও কোনো লাভ হচ্ছে না। এ অবস্থায় আমনের আবাদ নিয়ে তারা দুশ্চিন্তায় আছেন।

উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান মন্ডল বলেন, ধানগাছের হলুদ বর্ণ রোধে ও পোকার আক্রমণ থেকে ধানগাছ রক্ষায় বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামীমুর রহমান শামীম জমিতে খোলপচা রোগ ও মাজরা পোকার আক্রমণের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা লিফলেট বিতরণসহ কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কৃষক

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন