Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

আশুলিয়ায় জাফরুল্লাহসহ ৮জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা তদন্তে নেমেছে ডিবি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

এক কোটি টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ ৮জনকে আসামি করে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অন্যদিকে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ক্যান্টনমেন্ট থানার সাধারণ ডায়েরিটি (জিডি) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হিসেবে গ্রহণ করে তদন্তে নেমেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহসহ মামলা তদন্তের কাজ করছেন গোয়েন্দা পুলিশের একাধিক টিম। এছাড়া চাঁদা দাবি ও জমি দখলের অভিযোগে ডা. জাফল্লাহসহ চার জনের বিরুদ্ধে করা মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ১৪ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইসলাম মামলার এজহার গ্রহণ করে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ১৪ নভেম্বর দিন নির্ধারণ করেন। আশুলিয়া থানার আদালতের পুলিশের কোর্ট পরিদর্শক আসাদুজ্জামান আসাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের জয়েন্ট কমিশনার আব্দুল বাতেন দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, আমরা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাষ্ট্রদ্রোহ মামলাটি তদন্ত করছি। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আসামী গ্রেফতার ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা তদন্তপূর্বক গ্রহণ করা হবে। 

আশুলিয়া থানার ওসি রিজাউল হক জানান, গত সোমবার রাতে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর থানার খামারহাটি এলাকার মৃত লালমুদ্দিন মুন্সির পুত্র মোহাম্মদ আলী। মামলায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের  ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দেলোয়ার হোসেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র্রের নির্বাহী পরিচালক সাইফুল ইসলাম শিশির ও জমি বেচাকেনার মধ্যস্থ্যতাকারী আওলাদ হোসেনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা ৪জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলা নম্বর-৪১। 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আশুলিয়ার পাথালিয়া মৌজায় ৪দশমিক২৪একর সম্পত্তি বাদীসহ তার সহযোগী তাজুল ইসলাম ও আনিছুর রহমান ক্রয় করেন। পরে জমিতে তারা কাটাতারের বেষ্টনী ও টিনসেড ঘর তৈরী করে বিভিন্ন জাতের গাছ রোপন করেন। আসামীরা দীর্ঘদিন যাবৎ জমিটি অবৈধভাবে দখলের  চেষ্টা করে কাটাতারের বেষ্টনী ভেঙে ফেলে ও মাটি কেটে নিয়ে ক্ষতিসাধন করে। এছাড়া জমিটি নামমাত্র মূল্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের নিকট হস্তান্তরের জন্য চাপ সৃষ্টি করে। যার প্রেক্ষিতে সাভার আশুলিয়া থানায় গণস্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে একাধিক সাধারণ ডাইয়ী করা হয়। অবশেষে গত রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর নির্দেশে দেলোয়ার হোসেন, সাইফুল ইসলাম শিশির, আওলাদ হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা আসামীরা জমিতে প্রবেশ করে এক কোট টাকা চাঁদা দাবী করে। তাদের দাবীকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে কাঁটা তারের বেষ্টনী, ৩টি লোহার সাইনবোর্ড, ১টি গেইট ভাঙচুর করে ৫ লাখ টাকা ক্ষতিসাধন করে। পরে জমির মালিকরা এর প্রতিবাদ করলে আসামীরা তাদের খুন জখমের হুমকি দেয়। এছাড়া জমিতে থাকা সাড়ে তিন লাখ টাকা মূল্যে ৩টি লোহার সাইন বোর্ড ও ১টি গেইট নিয়ে যায়।

jaf-arm-16-10-18-shakhawat

Avïwjqvq Rvdiæjøvnmn 8R‡bi

weiæ‡× Puv`vevwRi gvgjv

## ivóª‡`ªvn gvgjv Z`‡šÍ †b‡g‡Q wWwe

## Z`šÍ cÖwZ‡e`b `vwL‡ji Rb¨ 14 b‡f¤^i w`b avh©

 

BbwKjve wi‡cvU©

GK †KvwU UvKv Pvu`v `vwei Awf‡hv‡M MY¯^v¯’¨ †K‡›`ªi U&ªvw÷ Wv. Rvdiæjøvn †PŠayixmn 8Rb‡K Avmvwg K‡i Avïwjqv _vbvq GKwU gvgjv `v‡qi Kiv n‡q‡Q| Ab¨w`‡K Wv. Rvdiæjøvn †PŠayixi weiæ‡× K¨v›Ub‡g›U _vbvi mvaviY Wv‡qwiwU (wRwW) ¯^ivóª gš¿Yvj‡qi wb‡`©‡k ivóª‡`ªvn gvgjv wn‡m‡e MÖnY K‡i Z`‡šÍ †b‡g‡Q XvKv gnvbMi †Mv‡q›`v cywjk (wWwe)| Wv. Rvdiæjøvn †PŠayix m¤ú‡K© Z_¨ msMÖnmn gvgjv Z`‡šÍi KvR Ki‡Qb †Mv‡q›`v cywj‡ki GKvwaK wUg| GQvov Pvu`v `vwe I Rwg `L‡ji Awf‡hv‡M Wv. Rvdjøvnmn Pvi R‡bi weiæ‡× Kiv gvgjvwUi Z`šÍ cÖwZ‡e`b `vwL‡ji Rb¨ 14 b‡f¤^i w`b avh© K‡i‡Qb Av`vjZ| MZKvj g½jevi XvKvi wPd RywWwmqvj g¨vwR‡÷«U AvwZKzj Bmjvg gvgjvi GRnvi MÖnY K‡i Z`šÍ cÖwZ‡e`b `vwL‡ji Rb¨ 14 b‡f¤^i w`b wba©viY K‡ib| Avïwjqv _vbvi Av`vj‡Zi cywj‡ki †KvU© cwi`k©K Avmv`y¾vgvb Avmv` welqwU wbwðZ K‡ib|

XvKv gnvbMi †Mv‡q›`v cywj‡ki R‡q›U Kwgkbvi Avãyj ev‡Zb ˆ`wbK BbwKjve‡K e‡jb, Avgiv Wv. Rvdiæjøvn †PŠayixi weiæ‡× `v‡qiK…Z ivóª‡`ªvn gvgjvwU Z`šÍ KiwQ| GK cÖ‡kœi Rev‡e wZwb e‡jb, Avmvgx †MÖdZvi I Ab¨vb¨ cÖ‡qvRbxq e¨e¯’v Z`šÍc~e©K MÖnY Kiv n‡e|

Avïwjqv _vbvi Iwm wiRvDj nK Rvbvb, MZ †mvgevi iv‡Z Avïwjqv _vbvq gvgjv `v‡qi K‡ib gvwbKMÄ †Rjvi nwiivgcyi _vbvi LvgvinvwU GjvKvi g„Z jvjgywÏb gywÝi cyÎ †gvnv¤§` Avjx| gvgjvq MY¯^v¯’¨ †K‡›`ªi  Wv. Rvdiæjøvn †PŠayix, MY wek¦we`¨vj‡qi †iwR÷ªvi †`‡jvqvi †nv‡mb, MY¯^v¯’¨ †K‡›`ªªi wbe©vnx cwiPvjK mvBdzj Bmjvg wkwki I Rwg †ePv‡Kbvi ga¨¯’¨ZvKvix AvIjv` †nv‡m‡bi bvg D‡jøL I AÁvZbvgv 4Rb‡K Avmvgx Kiv n‡q‡Q| gvgjv b¤^i-41|

gvgjvi GRvnvi m~‡Î Rvbv †M‡Q, Avïwjqvi cv_vwjqv †gŠRvq 4`kwgK24GKi m¤úwË ev`xmn Zvi mn‡hvMx ZvRyj Bmjvg I AvwbQzi ingvb µq K‡ib| c‡i Rwg‡Z Zviv KvUvZv‡ii †eóbx I wUb‡mW Ni ˆZix K‡i wewfbœ Rv‡Zi MvQ †ivcb K‡ib| Avmvgxiv `xN©w`b hver RwgwU A‰eafv‡e `L‡ji  †Póv K‡i KvUvZv‡ii †eóbx †f‡O †d‡j I gvwU †K‡U wb‡q ÿwZmvab K‡i| GQvov RwgwU bvggvÎ g~‡j¨ MY¯^v¯’¨ †K‡›`ªi wbKU n¯ÍvšÍ‡ii Rb¨ Pvc m„wó K‡i| hvi †cÖwÿ‡Z mvfvi Avïwjqv _vbvq MY¯^v¯’¨ KZ…©c‡ÿi weiæ‡× GKvwaK mvaviY WvBqx Kiv nq| Ae‡k‡l MZ †iveevi mKvj mv‡o 10Uvi w`‡K Wv. Rvdiæjøvn †PŠayixi wb‡`©‡k †`‡jvqvi †nv‡mb, mvBdzj Bmjvg wkwki, AvIjv` †nv‡mbmn AÁvZbvgv Avmvgxiv Rwg‡Z cÖ‡ek K‡i GK †KvU UvKv Puv`v `vex K‡i| Zv‡`i `vexK…Z Puv`v w`‡Z A¯^xK…wZ Rvbv‡j KuvUv Zv‡ii †eóbx, 3wU †jvnvi mvBb‡evW©, 1wU †MBU fvOPzi K‡i 5 jvL UvKv ÿwZmvab K‡i| c‡i Rwgi gvwjKiv Gi cÖwZev` Ki‡j Avmvgxiv Zv‡`i Lyb RL‡gi ûgwK †`q| GQvov Rwg‡Z _vKv mv‡o wZb jvL UvKv g~‡j¨ 3wU †jvnvi mvBb †evW© I 1wU †MBU wb‡q hvq|

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ