Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

অপূর্ব চিত্রকর্ম

তানজিলুর রহমান তুষার | প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

অপূর্ব চিত্রকর্ম

চোখের সামনে ধানক্ষেতের সবুজ প্রান্তর। এরই মধ্যে আঁকা হয়েছে বিভিন্ন চিত্রকর্ম। সবুজ মাঠে ভেসে আছে হরেক রঙয়ের চিত্রকর্ম। পাখির চোখে দেখলে মনে হবে যেন বিশাল সবুজ কোন ক্যানভাসে আঁকানো হয়েছে নানা রঙয়ের ছবি।

জাপানের ইনকাদাতে গ্রামে ধানক্ষেতের বিশাল ক্যানভাসে রঙিন ধান ব্যবহার করে বিভিন্ন চিত্রকর্ম ফুটিয়ে তোলা হয়। চিত্রকর্মের জন্য কোন রঙ বা তুলির আঁচড়ের প্রয়োজন পড়ে না। বরং প্রয়োজন হয় এক দীর্ঘ প্রস্তুতির। বিভিন্ন রঙয়ের ধানের চারা লাগানো হয় সবুজ প্রান্তরজুড়ে। নির্দিষ্ট থিমের চিত্রকর্মকে ভাবনায় রেখে চারাগুলো রোপণ করা হয়। এরপর ধানের চারা সময়ের সঙ্গে বেড়ে ধান গাছে পরিণত হয়। আর সবুজ প্রান্তরজুড়ে ভেসে ওঠে অপ‚র্ব এক ছবি।
ইনকাদাতে গ্রামে প্রত্যেক বছর ভিন্নধর্মী এ চিত্রকর্মের আয়োজন করা হয়। প্রত্যেক বছরের থিমও থাকে আলাদা। এ চর্চাটা শুরু হয়েছে সেই ১৯৯৩ সাল থেকে। গ্রামবাসীরা তাদের গ্রামকে নতুন করে ফুটিয়ে তোলার পরিকল্পনা করেন। এরপর ২ হাজার বছরেরও বেশি সময়ের ঐতিহ্য ধানকেই বেছে নেন তারা। ধান লাগানোর পুরনো এ ইতিহাসকে পরম্পরায় রাখতে শুরু হয় ব্যতিক্রমী চিত্রকর্ম আয়োজনের উদ্যোগ।
ধানক্ষেতের ক্যানভাসে চিত্রকর্মগুলো ফুটিয়ে তুলতে বিভিন্ন রঙয়ের ধানের চারা ব্যবহার করা হয়। সাধারণত চিত্রকর্ম ফুটিয়ে তোলার জন্য নয় ধরনের ভিন্ন রঙয়ের চারাগাছ রোপণ করা হয়। সবুজ ধানক্ষেতে ভিন্ন রঙয়ের ধানগাছ উঁকি দিয়ে তৈরি করে অপ‚র্ব চিত্রকর্ম। এ বছরের আয়োজনে জাপানের বিখ্যাত চিত্রকর ওসামু তেজুকাকে স্মরণ করে চিত্রকর্মগুলো ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। ধানের চারায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে তেজুকার বিখ্যাত চরিত্র অ্যাস্ট্রো বয়, বø্যাক জ্যাক, কিম্বা দ্যা হোয়াইট লায়ন প্রভৃতি।
ওসামু তেজুকা ‘মাঙ্গা’ নামের এক ধরনের চিত্রকর্মকে জনপ্রিয় করে তোলেন। ‘মাঙ্গা’ জাপানি শব্দ। যার অর্থ কমিকস, কার্টুন। তেজুকার অ্যাস্ট্রো বয়, প্রিন্সেস নাইট, কিম্বা দ্য হোয়াইট লায়ন প্রভৃতি মাঙ্গা বেশ সুনাম কুড়িয়েছে। তেজুকা একজন অ্যানিমেটরও ছিলেন, এর পাশাপাশি তিনি বেশ কিছু চলচ্চিত্রও প্রযোজনা করেন।
প্রত্যেক বছর সারা পৃথিবী থেকে অসংখ্য পর্যটক ধানক্ষেতের এ চিত্রকর্ম দেখতে জাপানের ইনকাদাতে গ্রামে পাড়ি জমান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।