Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

গোয়েন্দা কর্মককর্তা আসিরি কি খাসোগি হত্যার জন্য দায়ী

নতুন যুবরাজ হতে পারেন মোহাম্মদের ভাই খালিদ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

তুরস্কের ইস্তাম্বুল সউদী কনস্যুলেটে শাসক পরিবারের সমালোচক খাসোগিকে হত্যার পরিকল্পনায় ছিলেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের উপদেষ্টা গোয়েন্দা কর্মকর্তা মেজর জেনারেল আহমেদ আল-আসিরি। সউদী কর্তৃপক্ষ শেষ অবধি এরূপ একটি যবনিকায় পৌঁছতে পারে বলে তিনটি সূত্র উল্লেখ করে জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস। এদিকে সউদী এলিজেন্স কাউন্সিল এখন ২৮ বছর বয়সী মোহাম্মাদ বিন সালমানের ছোট ভাই খালিদ বিন সালমানকে উপ-যুবরাজের দায়িত্ব দিতে চাচ্ছে। পর্যায়ক্রমে তাকে যুবরাজের পদে অভিষিক্ত করা হবে। খালিদ বর্তমানে আমেরিকায় সউদী রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করছেন। গত বছর দেশটির রাজতন্ত্রের প্রথা ভেঙে যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানকে নয়া যুবরাজ পদে নিয়োগ দিয়েছিল এই কাউন্সিল। ফ্রান্সের দৈনিক লা ফিগারো বৃহস্পতিবার প্যারিসের একটি কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে। 

মোহাম্মাদ বিন সালমানের বিষয়ে একটি সউদী সূত্র লা ফিগারোকে বলেছে, খালিদকে উপ-যুবরাজের পদে বসানোর অর্থ হবে আগামীতে যুবরাজের পদ হারাবেন মোহাম্মাদ বিন সালমান। এভাবে সউদী রাজতন্ত্রের ক্ষমতা সালমান পরিবারের কাছেই রেখে দেয়া সম্ভব হবে। দেশে এবং দেশের বাইরে খালিদ বিন সালমান তার বড় ভাই মোহাম্মাদের চেয়ে অনেক বেশি জনপ্রিয় বলে পত্রিকাটি জানিয়েছে।
এর আগে নিউ ইয়র্ক টাইমস গত সোমবার খবর দিয়েছিল, খালিদ বিন সালমানকে এরইমধ্যে রিয়াদে উড়িয়ে আনা হয়েছে। তিনি আর রাষ্ট্রদূত হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাচ্ছেন না।
সউদী সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিহত হওয়ার কথা স্বীকার করে গোয়েন্দা কর্মকর্তা মেজর জেনারেল আহমেদ আল আসিরি এর জন্য দায়ী বলে ঘোষণা করতে পারে সউদী কর্তৃপক্ষ। আসিরি সউদী যুবরাজের উচ্চ পর্যায়ের উপদেষ্টা। বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট তিন সূত্রের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস এ তথ্য জানিয়েছে। স্বীকারোক্তিতে থাকতে পারে, খাসোগিকে আটক করে সউদী আরবে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য যুবরাজ মোহাম্মদের মৌখিক অনুমোদন ছিল। তবে আসিরি তার সে নির্দেশনা বুঝতে পারেননি এবং খাসোগিকে সউদী আরবে ফিরিয়ে না নিয়ে তাকে হত্যা করা হয়।
খাসোগি নিখোঁজ হওয়ার দিন ইস্তাম্বুলে সউদী কনস্যুলেট প্রাঙ্গণে সিসিটিভিতে ধারণকৃত কিছু ছবি ফাঁস করেছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম সাবাহ। ছবিতে খাসোগি নিখোঁজের ঘটনায় অন্যতম সন্দেহভাজন মাহের আব্দুল আজিজ মুতরেবকে দেখা গেছে। ছবিতে তার গতিবিধি সন্দেহজনক বলে উল্লেখ করেছে সাবাহ। নিউ ইয়র্ক টাইমস জানায়, ১৫ সদস্যবিশিষ্ট স্কোয়াডের মধ্যে একজনকে সউদী যুবরাজের দেহরক্ষী হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। মাহের আব্দুল আজিজ মুতরেব নামের ওই নিরাপত্তা সহযোগী একসময় লন্ডনস্থ সউদী দূতাবাসে কূটনীতিক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। সম্প্রতি সউদী যুবরাজের মাদ্রিদ, প্যারিস ও যুক্তরাষ্ট্র সফরে তোলা ছবিতে মুতরেবকে পাহারারত অবস্থায় দেখা গেছে। এবার সউদী কনস্যুলেটের সিসিটিভি ফুটেজে তার সন্দেহজনক গতিবিধি শনাক্ত হয়েছে। ওই ফুটেজ ২ অক্টোবর ধারণ করা। আর সেদিনই নিখোঁজ হন খাসোগি।
অপরদিকে, খাসোগি ইস্যুতে রিয়াদে আগামী সপ্তাহে অনুষ্ঠিতব্য বিনিয়োগ বিষয়ক সম্মেলন বয়কটের সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন। বৃহস্পতিবার মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিভ নিউচিন এবং ব্রিটিশ বাণিজ্যমন্ত্রী লিয়াম ফক্স জানিয়েছেন যে, তারা রিয়াদ সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন না। খাসোগি নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় এই প্রথম সউদী আরবের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিল যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন। এর আগে হল্যান্ড ও ফ্রান্স এই সম্মেলন বয়কট করেছে। সূত্র : রয়টার্স, নিউ ইয়র্ক টাইমস ও আল-জাজিরা।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খাসোগি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ