Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

আলেমসমাজ ভুলে গেছে রাষ্ট্রীয়ভাবে ইসলাম প্রতিষ্ঠা মুসলমানদের কাজ

সিলেটে ওয়াজ মাহফিলে মুফতি সৈয়দ মো. ফয়জুল করীম

সিলেট ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২১ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মো. ফয়জুল করীম শায়েখে চরমোনাই বলছেন, দেশের অধিকাংশ আলেম সমাজ বর্তমানে শুধু মসজিদ মাদ্রাসা ও হুজুরখানায় ইবাদতে ব্যস্ত। কিন্তু রাষ্ট্রীয়ভাবে ইসলাম প্রতিষ্ঠা, দেশ শাসন করাযে মুসলমানদের কাজ একথা তারা ভুলেই গেছেন। যার কারনে ইসলামবিরোধী শক্তি জালেম শাসকরা একের পর এক দেশ শাসন করে মুসলমানদের বুকের ওপর চেপে বসছে। ইসলামের স্বার্থ বিলীন করে ইসলামের দুশমনদের সাথে জোট করে ইসলাম প্রতিষ্ঠার আশা করা বোকামী। অতীতে ইসলামের নামে বাতিলের সাথে জোট করে ইসলামের কোন উপকার হয়নি। তাই জোট মহাজোট বাদ দিয়ে দ্বীন প্রতিষ্ঠায় আলেম উলামাসহ সকল মুসলমানকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি গত শুক্রবার রাত ১১টায় সিলেট নগরীর কদমতলী পয়েন্টে এক বিশাল ওয়াজ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাট করলে দেশের কোটি কোটি মানুষের কাছে যেমন মাফ চাওয়া সম্ভব নয়, মাফ পাওয়াও তেমনি সম্ভব নয়। কারণ সরকারের রাষ্ট্রীয় সম্পদের মালিক দেশের মানুষ। তাই মুসলমানদের এ বিষয়ে সতর্ক থাকা উচিত। তিনি বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাশের কারনে পুলিশ প্রশাসন যে কাউকে বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতার করতে পারবে এবং এতে জামিন অযোগ্য ধারাও রয়েছে। এ আইনে মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হয়েছে। সাংবাদিকরা যে ৯টি ধারা সংশোধনের আবেদন জানিয়েছেন তা আগামী অধিবেশনে সংশোধন করারও আহ্বান জানান।
তিনি আরো বলেন, দেশে ইসলামী শাসন নেই। কোন নিয়ম-কানুন নেই। চুরি, ডাকাতি, সন্ত্রাসী, গুম, খুন, রাহাজানি দিন দিন বাড়ছে। এ সরকারের অধীনে মানুষ নিরাপদ নয়। সব সময় মৃত্যুর ঝুঁকি ও ভয় নিয়ে চলতে হচ্ছে সাধারণ মানুষের। ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেশে ইসলামী শাসন কায়েম করতে হবে।
সিলেট সুলতানপুর মহিলা মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আনোয়ারুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও বিশ্বনাথ শিমূল তলা মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা লোকমান খানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সিলেট বিভাগীয় সদর ও সিলেট-১ আসনের এমপি প্রার্থী মাওলানা রেদওয়ানুল হক রাজু, শ্রীরামপুর মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা সাঈদ আহমদ, চারাদিঘীরপাড় জামে মসজিদের ইমাম হাফিজ মাওলানা আসাদ উদ্দিন, কদমতলী মসজিদের ইমাম মাওলানা মজির উদ্দিন, হুমায়ূন চত্তর মসজিদের ইমাম মাওলানা বদরুল ইসলাম, পাঠানটুলা নবাবী মসজিদের ইমাম মাওলানা বদরুল ইসলাম প্রমুখ।



 

Show all comments
  • Ali Ahmed ২১ অক্টোবর, ২০১৮, ১০:৫৫ এএম says : 0
    right
    Total Reply(0) Reply
  • MD Abu Taher ২১ অক্টোবর, ২০১৮, ১০:৫৬ এএম says : 0
    ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেশে ইসলামী শাসন কায়েম করতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Nazir Ahmed ২১ অক্টোবর, ২০১৮, ১০:৫৭ এএম says : 0
    ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাশের কারনে পুলিশ প্রশাসন যে কাউকে বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতার করতে পারবে এবং এতে জামিন অযোগ্য ধারাও রয়েছে। এ আইনে মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ