Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৬ ফাল্গুন ১৪২৫, ১২ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

চালকের কারাদণ্ডের প্রতিবাদে চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:৪৪ পিএম

এক বাসচালককে কারাদণ্ড দেওয়ার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি ও চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পরিবহন শ্রমিকদের একটি সংগঠন।

ধর্মঘটের কারণে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে চট্টগ্রাম থেকে রাউজান ও হাটহাজারী উপজেলার পথে এবং তিন পার্বত্য জেলা রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানের পথে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

ধর্মঘটের কারণে সড়কে কোনো ধরণের বাস-মিনিবাস চলাচল করছে না; অটোরিকশা ও টেম্পুর মতো ছোট পরিবহন চলাচলেও বাধা দিচ্ছেন।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের পূর্বাঞ্চলীয় (চট্টগ্রাম-সিলেট) কমিটির সভাপতি মৃণাল চৌধুরী বলেন, বুধবার বিআরটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত চলছিল।

“সড়কে একটি বাসকে থামতে নির্দেশ দেওয়া হলেও চালক তা দেখতে পায়নি। পরে বাসটিকে ধাওয়া করে হাটহাজারী এলাকায় ধরা হয়। সেখানে পুলিশ সদস্যরা ওই বাসচালককে মারধর করেন এবং তাৎক্ষণিকভাবে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে কারাদণ্ড দেয়।”

এই ঘটনার প্রতিবাদের ফেডারেশনের উত্তর চট্টগ্রাম উপ-কমিটি ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বলে জানান তিনি।

“চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে আলোচনার জন্য যোগাযোগ করা হচ্ছে। আলোচনা শেষে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাতে পারব।”

এদিকে ধর্মঘটের কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন তিন পার্বত্য জেলাগামী সাধারণ যাত্রীরা।

বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অক্সিজেন এলাকায় এসেও তিন পার্বত্য জেলায় যাওয়ার কোনো গাড়ি পাননি যাত্রীরা।

পাশাপাশি রাউজান ও হাটহাজারীর বাসিন্দারা শহরমুখী গাড়ি না পাওয়ায় নগরীতে আসতে পারেননি। বিপরীতে নগরী থেকেও গাড়ি না ছাড়ায় অনেকে এই দুই উপজেলার কর্মস্থলে যেতে পারেননি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রামে

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ