Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

জেলেপল্লীতে চলছে মাছ ধরার প্রস্তুতি

অপেক্ষা আর মাত্র ২ দিন

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৬ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:২২ এএম

মা ইলিশ রক্ষায় ইলিশ আহরণে অবরোধের শেষ দিকে মঠবাড়িয়ার বলেশ্বর নদ তীরবর্তী খেতাছিড়া, ভাইজোড়া ও কচুবাড়িয়া জেলে পল্লীতে মাছ ধরার প্রস্তুতির জন্য জেলেরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছে। ২ দিন পর তারা আবার নদীতে জাল ফেলে মাছ সংগ্রহ করে বিক্রি করে হাতে নগদ টাকা পাবে তাই ৩ জেলে পল্লীর সহস্রাধিক জেলে পরিবারে যেন ঈদের আনন্দ বইছে। ৭ অক্টোবর শুরু হওয়া অবরোধ আগামী ২৮ অক্টোবর শেষ হবে।

গতকাল বৃহষ্পতিবার জেলে পল্লীতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে কেউ পুরাতন জাল মেরামত করছে, কেউ নতুন জাল বুনছে এবং কেউ মাছ ধরার নৌকা/ট্রলার মেরামতে ব্যস্ত সময় পার করছে। জেলে পরিবারের নারী ও শিশু সদস্যরাও বসে নাই। তারাও জেলেদের সাহায্য করছে। অবরোধ চলাকালীন সরকার জেলেদের ২০ কেজি করে চাল খাদ্য সহায়তা হিসেবে দিয়েছে। জেলে পরিবারের জন্য এ সহায়তা ছিল অপ্রতুল। জেলেদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রায় প্রত্যেক জেলের মাথার উপর এনজিও অথবা দাদন ব্যবসায়িদের ঋণের কিস্তি ঝুলছে। সবাই তাদের সঞ্চয় ভেঙে দিনগুলো কোন ভাবে পার করছে।

খেতাছিড়া পল্লীতে নৌকা মেরামতে ব্যস্ত জেলে আবুল কালাম খান (৪২) জানান, জেলেদের মাছ ছাড়া আর কোন উপার্জন নাই। তাই অবরোধে যা সঞ্চয় ছিল তা শেষ হয়ে গেছে। আবরোধের পর ইলিশ না পেলে তাদের দুর্দশা আরও বাড়বে বলে আবুল কালাম জানান।
কচুবাড়িয়া পল্লীর জেলে পান্না ঘরামী (৫৫) জানান, অবরোধে সরকারের দেয়া ২০ কেজি চালে তাদের সংসার চলে না। তিনি খাদ্য সহায়তা বাড়াবার জন্য সরকারের নিকট দাবি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ