Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

নিউইয়র্কে তাদের বাড়ি আছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেছেন, দুর্নীতি নিয়ে সরকারি দলের যেসব নেতারা বড় বড় কথা বলে নিউ ইয়র্কে তাদের বড় বড় বাড়ি আছে। তিনি বলেন, আমি কারও নাম উল্লেখ করতে চাই না। তাদের বাড়ির ছবি আছে আমার কাছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ফোরাম আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেন, স্বৈরাচারী সরকার ক্ষমতা ছাড়তে চায় না। দুর্নীতির মাধ্যমে তারা যে অঢেল সম্পদের মালিক হয়েছেন। সেগুলোকে রক্ষার জন্যই তারা এমনটা করছে। বিরোধী দলকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার ষড়যন্ত্র চলছে দাবি করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ জানে তারা নির্বাচনে হেরে যাবে। সে জন্যই সরকার পরিকল্পিতভাবে বিরোধী দলকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার চেষ্টা করছে। কিন্তু তারা ভুল করছে। এই ষড়যন্ত্র সফল হবে না।
নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিএনপির এ শীর্ষ নেতা বলেন, আমরা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কিছু দাবি জানিয়েছি। এই দাবিগুলো না মেনে সরকার যেন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা না পারে, তার ব্যবস্থা করতে হবে। জীবনেও শুনিনি কোনো ঘটনা ছাড়া মামলা হয়। আমরা দেখেছি আগে কোনো আসামির জামিনের জন্য আবেদন করলেই সঙ্গে সঙ্গে আদেশ দেয়া হতো। এখন জামিন আবেদন শোনার জন্য তারিখ দেয় এক মাস পারে। আদেশের জন্য আবার তারিখ দেয়া হয় আরও একমাস পরে। আজ নিম্ন আদালতগুলো সরকারের আইন মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে। বিচারকদের পদোন্নতি বদলিসহ অন্যান্য বিষয়গুলো দেখে আইন মন্ত্রণালয়। যে কারণে সরকার যা বলে বিচারকদের তাই করতে হয়। এই কারণেই সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহাকে পদত্যাগ করতে হয়েছে। তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্য ছাড়া এ সরকারকে সরানো সম্ভব না। বর্তমানের এই অবস্থা থেকে মুক্তি পাওয়াও সম্ভব না। সংগঠনের সভাপতি আক্তারুজ্জামান বাচ্চুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেব বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) মহাসচিব ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, অ্যাডভোকেট রফিক সিকদার, ইয়াসিন আলী, মহানগর বিএনপি নেতা মীর হোসেন মীরু প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ