Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও চলছে ইলিশ ধরা

মু. আব্দর রশীদ, ঝালকাঠি থেকে : | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

ঝালকাঠির সুগন্ধা ও বিষখালী নদীতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দেদারছে চলছে মা ইলিশ শিকার। প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগের অভিযানের মধ্যেও নদীতে জাল ফেলেছেন জেলেরা। এদের মধ্যে বেশিরভাগই মৌসুমি জেলে। কেউ মোটরসাইকেল চালক, কেউ আবার দিনমজুর। নিষিদ্ধ সময় জাল ফেলে ডিমওয়ালা মা ইলিশ শিকার করছে তারা। ইলিশ ধরার কাজে তাদের সহযোগীতা করছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। মাছ ধরে নদী তীরে আসার সঙ্গে সঙ্গে কেউ জাল থেকে মাছ ছাড়িয়ে বস্তায় ভরছে, কেউ জাল টেনে কাজ এগিয়ে দিচ্ছেন। এ যেন সুগন্ধা ও বিষখালীতে ইলিশ নিধনের মহোৎসব চলছে। সুগন্ধা নদীর মাটিভাঙা, সরই, অনুরাগ, আমিরাবাদ, খোজাখালী, কংসারদিঘী, কুমারখালী এবং বিষখালী নদীর হদুয়া, রাজাপুরের বড়ইয়া ও পালট এলাকার শতাধিক স্থানে শত শত মণ মা ইলিশ শিকার করেছে জেলেরা। গত ২৪ ঘন্টায় মৎস্য বিভাগ অভিযান চালিয়ে এক জেলেকে আটক করেছে। ভ্রাম্যমান আদালত তাকে এক বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন। অভিযানের সময় ২৯ কেজি মা ইলিশ ও ২০ হাজার মিটার জাল জব্দ করে। আগামীকাল শেষ হয়ে যাচ্ছে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা।
ঝালকাঠি জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল কৃষ্ণ ওঝা বলেন, নিষেধাজ্ঞার শুরু থেকে শুক্রবার পর্যন্ত জেলা প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগ অভিযান চালিয়ে ৫১ জন জেলেকে আটক করেছে।
এর মধ্যে ৩৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে। অন্যদের কাছ থেকে ৮১ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে। জব্দ করা হয়েছে ৭৯০ কেজি ও তিন লাখ ৮৩ হাজার মিটার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইলিশ


আরও
আরও পড়ুন