Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

ব্যাংকের ১৮ কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে খুলনার পাট ব্যবসায়ী জেলহাজতে

প্রকাশের সময় : ২৯ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা, খুলনা : উত্তরা ব্যাংক খুলনা শাখার ১৮ কোটি ৬০ লাখ ৬০ হাজার টাকা আত্মাসাতের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় মহানগরীর দৌলতপুরের লক্ষণ জুটের মালিক সুজিত ভট্টাচার্য লক্ষণকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় দিকে মহানগরীর নুরনগরে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।
দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিদর্শক শ্যামল কুমার সেন জানান, পাট ব্যবসায়ী সুজিত কুমার ভট্টাচার্য লক্ষণের দৌলতপুরস্থ পাট গোডাউন পরিদর্শন করে উত্তরা ব্যাংক খুলনা শাখা কর্তৃপক্ষ দেখতে পায়  ঋণ নেয়া ১৮ কোটি ৬০ লাখ ৬০ হাজার টাকার পাট নেই। এঘটনায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ২০১৫ সালের ১১ জুন দৌলতপুর থানায় সুজিত কুমার ভট্টাচার্য লক্ষণের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের একটি মামলা দায়ের করে।
এরআগে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ একাধিকবার সুজিত কুমার ভট্টাচার্য লক্ষণকে চিঠি দিয়ে ঠাকা পরিশোধের জন্য তাগাদা দেন। দৌলতপুর থানায় দায়েরকৃত মামলাটি দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ মোশাররফ হোসেন তদন্ত করেন। তদন্ত শেষে প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয় সুজিত কুমার দাস লক্ষণ ১৮ কোটি ৬০ লাখ ৬০ হাজার টাকা আত্মসাত করেছেন। এরপর দুদক কর্তৃপক্ষ সুজিত কুমার ভট্টাচার্য লক্ষণকে দুদক কার্যালয়ে আসার অনুরোধ জানান। কিন্তু তিনি নানা কৌশলে সময়ক্ষেপণ করতে থাকেন। গত বুধবার দুদক কর্তৃপক্ষ পাট ব্যবসায়ী তাকে কৌশলে দুদক অফিসে ডেকে নিয়ে গ্রেফতার করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্যাংকের ১৮ কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে খুলনার পাট ব্যবসায়ী জেলহাজতে
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ