Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

প্রশ্ন : আমার মা কিডনি, ক্যান্সারসহ নানা জঠিল রোগে ভুগে খুব অসহায় অবস্থায় মারা যান। বড় সন্তান হিসেবে দায়িত্ব পালন করিনি। অনেক অবহেলা করেছি, রাগারাগি করেছি, তার চিকিৎসাও ঠিকমতো করিনি। আমি এখন খুব মর্মাহত, ক্ষমা পাওয়ার উপায় আছে কি?

আরিফ চৌধুরী
ইমেইল থেকে।

প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:১৪ এএম

উত্তর : যে বিবরণ আপনি দিয়েছেন, এটি আপনার অনুশোচনা ও অনুতাপ থেকেই এসেছে। এরই নাম তওবা। আপনি আল্লাহ তায়ালার কাছে খুব কান্নাকাটি ও মিনতি করে তওবা ইস্তেগফার করতে থাকুন। যে অপরাধ আপনি করেছেন, সেটি মূলত মায়ের কাছে। কারণ, এটি ছিল বান্দার হক। আল্লাহর নয়। আল্লাহ ইচ্ছা করলে আপনার আম্মাকে রাজী করিয়েও আপনাকে মাফ করতে পারেন। তবে আপনার অপরাধের নাম ‘ওকুকুল ওয়ালিদাইন’। যা শিরকের পর সবচেয়ে বড় গুনাহ। বড় ছেলে হিসাবে মায়ের প্রতি এত অবহেলা ও দায়িত্বহীনতা কেন দেখালেন? আপনার এ আচরণ অনেকটাই অমানবিক নির্মমতার পর্যায়ে পড়ে। আপনার গুনাহ আল্লাহ মাফ করবেন। তবে, মায়ের কাছে ক্ষমা চাওয়া বাকি রয়ে গেছে। মা হয়তো অভিমান করে চলে গেলেও আপনাকে ক্ষমা করেও দিয়েছেন। মায়েরা এমনই হয়। এরপরও আপনার জন্য তিনটি পথ শরিয়তে খোলা আছে। ১. মায়ের জন্য আল্লাহর কাছে বেশি বেশি দোয়া করা। ২. দান, সদকাহ, নফল ইবাদত ইত্যাদির মাধ্যমে মায়ের নামে সওয়াব পাঠানো। ৩. নিজের ক্ষমার জন্য আল্লাহর কাছে আজীবন রোনাজারি করে যাওয়া। যা প্রথমেই বলা হয়েছে।

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

Show all comments
  • Mohammod ২৯ অক্টোবর, ২০১৮, ১১:৪৮ এএম says : 0
    Very sad,but don't worry Allah is very mercyfull and wise.Wish,your mother's soul become agree to u.
    Total Reply(0) Reply
  • সুলতান ২৯ অক্টোবর, ২০১৮, ৪:০৪ এএম says : 0
    এরকম অনেক মানুষই আছে
    Total Reply(0) Reply
  • ruhulamin ২ নভেম্বর, ২০১৮, ৯:০৩ এএম says : 0
    Ami Alcohol shop a chakori kori.amra sobai alcholer dam onek somoi companir price er ceyeo besi rakhi jaha kreta janena. companio jane na.emota obostai amar koroneo ki
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ ইলিয়াছ ৭ নভেম্বর, ২০১৮, ৯:৪৮ এএম says : 0
    মারাত্তক অন্যায় কাজ করছেন। আপনার যে রকম সমার্থ আছে সে রকম করতেন । এটা আমি মেনে নিতে পারি না ।
    Total Reply(0) Reply
  • Kuddus ২৫ নভেম্বর, ২০১৮, ৪:৩৫ পিএম says : 0
    Apnee jebavey ullek korlen monehey holo full time apnee takecare kortey paren nay !!!! Same case amar !!! Jeta kortey paren !!! Namaz poren duwa poren !!! Shusto poribesh e jibon japon koren !!! Manush key saddo moto Dan korun !!! R parley tader key bolun ontor thekey apnar maa er jonno duwa korey !!! Parley 1 time cholbey
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রশ্ন :


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ