Inqilab Logo

বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

১৮৯ আরোহী নিয়ে সমুদ্রে বিধ্বস্ত ইন্দোনেশিয়ার বিমান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০১৮, ১১:০৪ এএম | আপডেট : ১:৩১ পিএম, ২৯ অক্টোবর, ২০১৮

ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা থেকে ১৮৯ জন আরোহী নিয়ে উড্ডয়নের সামান্য পরেই তা সমুদ্রে বিধ্বস্ত হয়েছে। এর আরোহীদের কি অবস্থা হয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায় নি। এ খবর দিয়েছে অনলাইন দ্য স্ট্রেইটস টাইমস। এতে বলা হয়, স্থানীয় সময় সকাল ৬টা ২০ মিনিটে লায়ন এয়ারের ফ্লাইট জেটি-৬১০ উড্যয়ন করে। ৬টা ৩৩ মিনিটের সময় এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলারের সঙ্গে এর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এটি একটি বোয়িং ৭৩৭ বিমান। স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ২০ মিনিটে এর পৌঁছার কথা ছিল পাঙ্গকাল পিনাংয়ে। লায়ন এয়ারের এই বিমান ও এর আরোহীদের অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে ইন্দোনেশিয়ার অনুসন্ধান ও উদ্ধার বিষয়ক এজেন্সির মুখপাত্র ইউসুফ লতিফ বলেছেন, বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে এটা নিশ্চিত।

সংবাদ সম্মেলনে এ সংস্থার প্রধান মুহাম্মদ সাইউগি বলেছেন, পশ্চিম জাভার কারাওয়াঙ্গ উপসাগরে এ বিমানটি বিধ্বস্ত হয়ে ডুবে গেছে। তবে সমুদ্রের উপরিতলে আমরা এর ধ্বংসাবশেষ দেখতে পেয়েছি। যেখানে এটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছিল তা থেকে প্রায় দুই নটিক্যাল মাইল দূরে এসব ধ্বংসাবশেষ দেখা গেছে। তানজুং প্রিওক সমুদ্র বন্দরের ভেসেল ট্রাফিক সার্ভিসের একটি টাগবোট থেকে বলা হয়েছে যে, তারা সোমবার সকালে একটি বিমানকে সমুদ্রে ডুবে যেতে দেখেছে। উল্লেখ্য, ওই বিমানে ১৮৯ জন আরোহী ছিলেন। এর মধ্যে তিনটি শিশু রয়েছে। তার মধ্যে দু’টি সদ্য প্রসূত। এ ছাড়া ওই বিমানে ছিলেন দু’জন পাইলট ও ৫ জন ফ্লাইট এটেন্ডেন্ট। এর আগে ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে ইন্দোনেশিয়া এয়ার এশিয়ার ফ্লাইট কিউজেড ৫০১ জাভায় নিমজ্জিত হয়। এতে ১৬২ জন আরোহী ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইন্দোনেশিয়ার বিমান
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ