Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

ব্রাজিলের নতুন প্রেসিডেন্ট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

কট্টর ডানপন্থী প্রার্থী জাইর বোলসোনরো ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বোলসোনরো ৫৫ দশমিক ২ শতাংশ ভোট পেয়ে ৪৪ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট পাওয়া বামপন্থী ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী ফের্নেন্দো হাদাজিকে পরাজিত করেন, ব্রাজিলের নির্বাচনী কর্তৃপক্ষের প্রতিবেদনের বরাতে জানিয়েছে বিবিসি।

১৯৬৪ থেকে ১৯৮৫ সাল পর্যন্ত সামরিক বাহিনীর একনায়কতান্ত্রিক শাসনের পর ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হতে যাওয়া সশস্ত্র বাহিনীর প্রথম সাবেক কর্মকর্তা তিনি; জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
নির্বাচনী প্রচারণাগুলোতে প্রকাশ্যে ওই সামরিক একনায়কতান্ত্রিক শাসন পর্বের প্রশংসা করেছেন বোলসোনরো। নিজের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়গুলোর মন্ত্রী হিসেবে তিনি সামরিক বাহিনীর সাবেক জেনারেলদেরই প্রাধান্য দিচ্ছেন বলে খবর।
নির্বাচনে বড় ধরনের জয় পাওয়ার পর প্রথম প্রকাশ্য মন্তব্যে গণতান্ত্রিক নীতিগুলোর প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি; পাশাপাশি দেশের গতিপথ পরিবর্তন করতে চান বলেও জানিয়েছেন। বলেছেন, ‘সমাজতন্ত্র, সাম্যবাদ, জনপ্রিয়তাবাদ ও বাম চরমপন্থার সঙ্গে প্রেম দেখিয়ে চলবো না আমরা’।
দুর্নীতি ও বিস্তৃত সহিংস অপরাধের মূল উপড়ে ফেলারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশংসাকারী বোলসোনরো ব্রাজিলকে অগ্রসর অর্থনীতিগুলোর সঙ্গে পুনঃসম্পর্কিত করারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষিত হওয়ার পরপরই তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।
গত ১৫ বছরের মধ্যে ১৩ বছর (২০০৩-২০১৬) ব্রাজিল বামপন্থী ওয়ার্কার্স পার্টির শাসনাধীন ছিল। তাদের জনপ্রিয়তা হ্রাস পাওয়ার মধ্যদিয়েই ৬৩ বছর বয়সী কংগ্রেসম্যান বোলসোনরোর উত্থান। ২০১৬ সালে গভীর অর্থনৈতিক মন্দা ও রাজনৈতিক দুর্নীতির মুখে ক্ষমতা হারায় ওয়ার্কার্স পার্টি। গত দুই বছর ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন রক্ষণশীল নেতা মিশেল তেমের। কিন্তু ব্রাজিলীয়দের মধ্যে তিনি অত্যন্ত অজনপ্রিয় বলে প্রমাণিত হন। বিদায়ী এই প্রেসিডেন্টের জনপ্রিয়তার রেটিং রেকর্ড পরিমাণ হ্রাস পেয়ে মাত্র ২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।
বোলসোনরোর জয় ঘোষিত হওয়ার পর রিও ডি জেনিরোর সমুদ্রসৈকতের পাশের বিলাসবহুল বারা দা চিজুকা আবাসিক এলাকায় তার বাড়ির সামনে হাজার হাজার সমর্থক জড়ো হয়। আতশবাজি ফুটিয়ে উল্লাস প্রকাশ করে তারা। তার বিজয়ে ব্রাজিলের বাণিজ্যিক রাজধানী সাও পাওলোতেও তার সমর্থকরা আতশবাজি ফুটিয়ে ও গাড়ির হর্ণ বাজিয়ে উল্লাস প্রকাশ করে। সূত্র : বিবিসি ও রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্রাজিল


আরও
আরও পড়ুন