Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

ঠোঁটের প্রদাহজনিত রোগ

ডাঃ মোঃ ফারুক হোসেন | প্রকাশের সময় : ২ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৮ এএম

মুখ ও ঠোঁটের প্রদাহজণিত যে কোনো রোগ অত্যন্ত সতর্কতার সাথে চিকিৎসা করতে হবে। এক্সফলিয়েটিভ চিলাইটিস ঠোঁটের একটি প্রদাহজনিত রোগ। চিলাইটিস অর্থ ঠোঁটের প্রদাহ বা জ্বালাপোড়া। এক্সফলিয়েটিভ অর্থ ঠোঁটের উপরে চামড়া অনবরত শুকিয়ে পড়ে যাওয়া। এক্সফলিয়েটিভ চিলাইটিস একটি ক্রনিক প্রদাহজনিত অচলাবস্থা যার কারণে ক্রমাগত স্কেলিং অর্থাৎ ঠোঁটের উপরের চামড়া বা মিউকাস মেমব্রেন উঠে পড়ে যায়। ফলে ঐ স্থান ক্ষতের মতো দেখা যায়। ক্ষতস্থান ধীরে ধীরে শুকায় এবং দুঃখজনক ব্যাপার হলো শুকানোর পর প্রায় স্বাভাবিক অবস্থায় যাওয়ার পর আবার ঠোঁটের উপরের চামড়া উঠে যায়। এটি এমন একটি বিড়ম্বনাকর পরিস্থিতি যার কারণে রোগী ঘরের বাহিরে যেতে চায় না তার চেহারা খারাপ দেখা যায় বলে। বিশেষ করে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বা কর্মক্ষেত্রে ঠোঁটের এই অবস্থা সবাইকে বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে ফেলে দেয়। এ অবস্থায় বিশেষ ধরণের স্টেরয়েড ক্রিম ব্যবহার করা যেতে পারে। আবার গিøসারিন বোরাক্স এক্সফলিয়েটিভ চিলাইটিস এর চিকিৎসায় ব্যবহার করা যায়। ছত্রাক বিরোধী বা এন্টিফাঙ্গাল ওষুধ সেবন করা যেতে পারে। অন্য কোনো মাউথ ওয়াস ব্যবহার না করে শুধুমাত্র হাইড্রোজেন পার অক্সাইড নিয়মানুযায়ী ব্যবহার করা উচিত। ভিটামিন ‘ডি’ সেবন করা যেতে পারে। উপরোক্ত প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণের পর যদি এক্সফলিয়েটিভ চিলাইটিস ভাল না হয় তবে আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুণ। মনে রাখবেন এক্সফলিয়েটিভ চিলাইটিস একটি সময় সাপেক্ষ চিকিৎসা। তাই ধৈর্য ধরে চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। অতএব, ঠোঁটের উপরে ঘাঁ, ফুলাভাব বা গোটা জাতীয় কিছু দেখা গেলে প্রথমেই তা গুরুত্বের সাথে চিকিৎসা করতে হবে।

০ মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
মোবাইল ঃ ০১৮১৭৫২১৮৯৭



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর