Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

নির্বাচনে কালো টাকার মালিকদের বয়কট করতে হবে

নির্বাচনী শোডাউনে মোসাদ্দেক বিল্লাহ মাদানী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০১৮, ৪:৪৭ পিএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা-৪ আসনের প্রার্থী প্রিন্সিপাল সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী বলেছেন, নির্বাচন কালো টাকার মালিক ও পেশীশক্তির হাতে বন্দি। পেশীশক্তিগুলো জোর ও টাকার প্রভাব খাটিয়ে কাজ হাসিল করে। ফলে যোগ্য, দক্ষ ও দেশপ্রেমিক নাগরিকরা নির্বাচিত হতে পারে না। সন্ত্রাস, দুর্ণীতি ও কায়েমী স্বার্থবাদীদের উৎখাত করে দেশপ্রেমিক, ঈমানদার ও আল্লাহভীরু নেতা নির্বাচন করতে হবে। এজন্য পেশীশক্তি ও কালো টাকার মালিকরা যেন নির্বাচনে প্রার্থী হতে না পারে সে ব্যবস্থা নির্বাচন কমিশনকে করতে হবে।

আজ ঢাকা-৪ আসনে নির্বাচনী শোডাউনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। শ্যামপুর বাজারে শোডাউন পূর্ব জমায়েতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুর কাইয়ূম, যুবনেতা মাওলানা নেছার উদ্দিন। থানা সভাপতি মাওলানা আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জমায়েতে বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, মাওলানা ক্বারী মাসউদুর রহমান চাঁদপুরি, হাজী সাইদুল ইসলাম বাবুল, হাজী শফিকুল আমীন খান, আজিজুল হক আজিজ, আলহাজ্ব ই্উনুছ মাস্টার, হাজী বেলাল হোসাইন আরিফ, সুলতান আহম খান প্রমুখ।

প্রিন্সিপাল মাদানী বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এক প্রকারের ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচন কিভাবে হবে তা এখনও পরিস্কার নয়। দেশের নির্বাচন ব্যবস্থাকেই ধ্বংস করে ফেলেছে সরকার। বিগত ১০ বছরে দেশে কোন সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি। স্থানীয় সরকারের নির্বাচনগুলোতেও জনগণ তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারেনি। ক্ষমতাসীনরা তাদের দলীয় লোকদেরকে নির্বাচিত করার জন্যে এহেন কাজ নেই যা করেনি। নির্লজ্জভাবে মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশন এবং প্রশাসন কেউই নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করেনি। ফলে নির্বাচনকে মানুষ এখন প্রহসন এবং তামাশা মনে করে। ইসলামী আন্দোলনের ১০দফা মেনে নিলে রাজনৈতিক সঙ্কট দেশে থাকবে না।

প্রচার মিছিলটি শ্যামপুর বাজার, বড়ইতলা, পোস্তাগোলা হয়ে জুরাইন, দোলাইপাড়, মীর হাজীরবাগ বড়বাড়ী এলাকা এসে সমাপ্ত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ