Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

সুবিচার হলেই খালেদা জিয়ার মুক্তি সম্ভব -ডা. জাফরুল্লাহ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০১৮, ৫:১৫ পিএম

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে গণ স্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেনে, খালেদা জিয়ার কারো দয়ার প্রয়োজন নেই। উনার প্রতি ন্যায়্য অধিকার প্রয়োগ করা হোক। উনার প্রতি সুবিচার যেন করা হয়। সুবিচার হলেই উনার মুক্তি সম্ভব। কিন্তু সুবিচার হচ্ছে না। এ দেশের বিচার ব্যবস্থা স্বাধীন না। তিনি বলেন, জামিন পাওয়া মানুষের মৌলিক অধিকার। খুনের মামলার আসামী জামিন পায় তা হলে খালেদা জিয়া কেন জমিন পাবেন না? আমি গত কয়েক দিনে দেখেছি কোটের বারান্দায় হাজার হাজার মানুষের আহাজারী। কোটের বারান্দায় শুয়ে আছে, কোথায় ভেড়ামারা, খুলনা, কুষ্টিয়া, ইশ্বরদী, চট্টগ্রাম থেকে এসে জামিনের জন্য। এ অবস্থার পরিবর্তন দরকার।
গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এ সব কথা বলেন। সংগঠনের সভাপতি (চলতি দায়িত্ব) আবেদ রাজা সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সদস্য সচিব ও সুপ্রিম কোর্ট বারের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এবিএম রফিকুল হক তালুকদার রাজার সঞ্চালনায় এতে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে রাখেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বক্তব্য রাখেন কেন্দীয় মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, সংগঠনের প্রসিডিয়াম সদস্য মনির হোসেন, আইনজীবী তৈমূর আলম খন্দকার, ব্যারিস্টার হায়দার আলী, বিচারপতি ফয়সাল মাহমুদ ফয়েজী, ড. গোলাম রহমান ভূইয়া, আনিছুর রহমান খান, আইয়ুব আলী আশরাফী, আশরাফুজ্জামান, ওয়াছেল উদ্দিন বাবু, কামাল হোসেন, পিকে সরকার, আবদুস সাত্তার, আবু হানিফা, শামসুল ইসলাম মুকুল, ফজলুল হক আকন্দ, আমান ফেরদৌস, মো: শাহ আলম সোহাগ, এআর খান পাঠান, মুকতার হোসেন, আবুল কাশেম রাজু, আবুল খায়ের খান, ব্যারিস্টার মামুন, নাজমুল হাসান, একেএম ফজলুল হক, মো: আবদুস সামাদ, হুমায়ুন কবীর চৌধুরী, আহসানউল্লাহ, মিনারা বেগম মিনি, আমিনুল ইসলাম মনি, ওয়ালিউল ইসলাম শুভ, সাইদ হাসান বক্তিয়ার, এইচএ মাহমুদ সুমন, মো: হানিফ, মো: মনির হোসেন, ডা. মুস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।
ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, খালেদা জিয়ার বড় অপরাধ তিনি সংসদীয় গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনেছেন। তার বিরুদ্ধে ২ কোটি টাকার মামলা। অথচ সেই দুই কোটি টাকা বেড়ে ছয় কোটি হয়েছে এবং ব্যাংকে গচ্ছিত আছে। আর বাংলাদেশ ব্যাংকের সোনা তামা হয়ে যাচ্ছে। তার পরও দুদক মামলা করে না।
সভাপতির বক্তব্যে আবেদ রাজা বলেন, একটি দলের প্রধানকে জেলে রেখে পৃথিবীর কোনো দেশে সংলাপ হয়নি। আমরা প্রহসনের কোন কিছু চাই না। আমরা ভবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই। খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া কোন সংলাপ সফল হবে না।
মনির হোসেন বলেন, এদেশে গণতন্ত্র নেই। দেশের মানুষ ভোটের অধিকার, গণতান্ত্রিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। সামনে নির্বাচন এই নির্বাচন সুষ্ঠ ও গ্রহণযোগ্য হতে হবে। সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। নিপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের লক্ষ্যে এবং মানুষের ভোটের অধিকার আদায়ের জন্য গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন আজ রাজ পথে নেমেছে। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দিয়ে দেশে কোনো নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না।
সাবেক বিচারপতি ফয়সাল মাহমুদ ফয়েজী বলেন, আপনারা রাজপথে নেমে আসুন। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি সময়ের ব্যাপার। দেশের ৬৫ হাজার গ্রামের মানুষ রাজ পথে নেমে আসলে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ