Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

আত্মবিশ্বাসী রোডস, আশায় রাজপুত

স্পোর্টস রিপোর্টার, সিলেট থেকে : | প্রকাশের সময় : ৬ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

প্রথম ইনিংসের নিদারুণ ব্যাটিং ব্যর্থতাতেই ম্যাচ হারের কিনারে, মাথার উপর বোঝা হয়ে আছে রেকর্ড গড়ে জেতার চ্যালেঞ্জ। তবু বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস বলছেন তাও পেরে উঠবেন তারা। কারণ ধীরে ধীরে তাদের মনে জন্মাচ্ছে আত্মবিশ্বাস।
গতকাল তৃতীয় দিনে খেলা শেষ হয়েছে আধাঘণ্টা আগে। খেলার পর লম্বা সময় নিয়ে টিম মিটিং করে সংবাদ সম্মেলনে আসেন কোচ। ম্যাচের যা পরিস্থিতি তাতে বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখার কোন উপায় নেই। তবে সব সময় যা ঘটে না সেটাই করতে চায় বাংলাদেশ, ‘আমি মনে করি দলে চাপা আত্মবিশ্বাস আছে। তারা জানে যে ম্যাচ জিততে হলে এই ম্যাচের সর্বোচ্চ রান করতে হবে। এবং এটা সবসময় ঘটে না। আমরা প্রথম ইনিংসের চেয়ে অবশ্যই দ্বিতীয় ইনিংসে ভাল ব্যাট করতে চাই। আজ (গতকাল) দিনের শেষে লিটন ও ইমরুলের ব্যাটিংয়ে খুবই খুশি। আহামরি রান না এলেও তারা ভাল ভিত গড়েছে।’
চতুর্থ ইনিংসে ব্যাট করে ৩২১ রান তাড়া করা। উপহামহাদেশের মাঠেই হয়েছে হাতেগোনা কয়েকটা। বাংলাদেশের মাঠে এত রান তাড়ার রেকর্ড নেই। বাংলাদেশের তো নেই-ই। তবু রোডস হিসেব করছেন সেশন ধরে ধরে, ‘আজ (গতকাল) প্রথম সেশন অনেকটাই ড্র ছিল আমি বলব। আমরা পরের দুই সেশনও জিতেছি। সুতরাং আমরা সঠিক পথেই আছি। আমরা আগামীকালের (আজকের) সেশনগুলোও জেতার চেষ্টা করব।’
বাংলাদেশকে আশা দেখাচ্ছে সিলেটের উইকেটের আচরণও। তৃতীয় দিন পার হলেও এখনো মেলেনি বিপদজনক টার্নের দেখা, ‘ভাল দিক হচ্ছে, উইকেটটি এখনও ভীতিকর টার্নারের মত আচরণ করছে না। সব বল টার্ন করছে না। মাঝে মধ্যে কিছু বল টার্ন করছে, যতক্ষণ পর্যন্ত আপনি বেশি দুশ্চিন্তা না করছেন, ততক্ষণ পর্যন্ত খুব বেশি সমস্যা হওয়ার কথা না। ইমরুল ও লিটন দেখিয়ে দিয়েছে তাঁরা সেটা করার সামর্থ্য রাখে। এখানে রান করার উপায় অবশ্যই আছে। আমরা দুইটি বড় জুটির খোঁজে আছি এবং সেটা সম্ভব। বড় স্কোর তাড়া করে জেতা খুবই কঠিন, কিন্তু এটা অসম্ভব নয়।’
৩ মাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশের জ¦লুনি, ১১ মাস পর টেস্ট খেলতে নেমে দারুণ শুরু, ২০১৫ সালের পর হারের বৃত্তে বন্দী জিম্বাবুয়ে কী ছেড়ে কথা বলবে? দলটির হয়ে সাদা পোষাকে অভিষেকে এমন ক্ষণে জয়ের আশাও তাই ছাড়ছেন না কোচ লালচাঁদ রাজপুত, ‘ওয়ানডে হতাশা কাটিয়ে টেস্টে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ছেলেরা। আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাবো। আপনি কোন কিছুকেই শেষ বলে ধরে নিতে পারেন না। শেষ রান কিংবা শেষ উইকেটের আগে তো অবশ্যই না। আমরা আশাবাদী, আগামীকালই (আজই) হয়তো আমরা ১০ উইকেট নিয়ে নিতে পারি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন