Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ রুটের অভ্যন্তরীণ বাস চলাচল বন্ধ, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

ইজি বাইক ও অটোভ্যান শ্রমিকদের হামলায় ২ বাস শ্রমিক আহত

প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০৩০, ১২:০০ এএম

শরণখোলা উপজেলা সংবাদদাতা : বাগেরহাটের শরণখোলায় বাস শ্রমিক এবং ইজি বাইক-অটো ভ্যান শ্রমিকদের মধ্যে পৃথক দুটি সংঘর্ষে দুই বাস শ্রমিক আহত হয়েছেন। শনিবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার লাকুড়তলা এবং সাড়ে ৯টার দিকে আমড়াগাছিয়া বাসস্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে। আহত শ্রমিকরা হলেন, আল্লাহর দান পরিবহনের সুপারভাইজার রাসেল শেখ (২২) এবং মামুন পরিবহনের ড্রাইভার জাকির ফরাজী (২৭)। তাদেরকে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় বাস ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে লোকাল বাস মালিক সমিতি ও শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা। সকাল থেকে শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ রুটে অভ্যন্তরীণ (লোকাল) সকল বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঘটনার সুষ্ঠু সমাধান না হলে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দিয়েছেন তারা। সকাল থেকে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন এ অঞ্চলের যাত্রীরা।
মালিক সমিতি সূত্রে জানা যায়, এদিন সকাল পৌনে ৮জটার দিকে ৩২৯১ নম্বরের আল্লাহর দান নামের পরিবহনটি তাফালবাড়ি থেকে ছেড়ে ৮টার সময় লাকুড়তলা স্ট্যান্ডে পৌছায়। এসময় ওই স্ট্যান্ডের ইজি বাইক ও অটো ভ্যানচালকদের নেতা (তোলা আদায়কারী স্ট্যাটার) সরোয়ার মোল্লার নেতৃত্বে কয়েক লাঠিসোটা নিয়ে বাসে হামলা চালায়। এসময় বাসের সুপার ভাইজার রাসেলকে তারা পিটিয়ে আহত করে। এবং ওই রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হবে বলে তারা হুমকি দেয়। এছাড়া মোরেলগঞ্জ থেকে যাত্রী নিয়ে ৩৯৮০ নম্বরের মামুন পরিবহনের বাসটি সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আমড়াগাচিয়া স্ট্যান্ডে এলে ইজ বাইক ও অটো ভ্যান শ্রমিকরা বাসের ডাইভার (চালক) জাকিরকে পিটিয়ে আহত করে। এসময় হমালাকারীরা ওই ড্রাইভারের কাছে থাকা ৪০ হাজার টাকা ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে মালিক সমিতির নেতারা অভিযোগ করেন।
মহাসড়ক থেকে অবৈধ ইজি বাইক ও অটো ভ্যান চলাচল
শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ-মংলা বাস ও মিনি বাস মালিক সমিতির সভাপতি মো. শামীম হাসান পলাশ ও বাস শ্রমিক ইউনিয়নের আহবায়ক ও পৌর কমিশনার মো. নান্না মিয়া শেখ জানান, ইজি বাইক ও অটো ভ্যান চালকরা বাস শ্রমিকদের সাথে বরাবরই বেপরোয়া আচরণ করে আসছে। কথায় কথায় তারা বাস ভাঙচুর ও শ্রমিকদের মারধর করেই চলেছে। এর আগেও বেশ কয়েকবার এধরণের ঘটনা ঘটেছে। তাদের কারণে মহাসড়কে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে। শ্রমিকদের ওপর হামলার সুষ্ঠু বিচার না হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাস চলাচল বন্ধ রাখা হবে। প্রয়োজনে দুরপাল্লার পরিবহনও বন্ধ থাকবে। মামলা প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন ওই নেতারা।
শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ আলম মিয়া জানান, অভিযোগ পেলে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ