Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

তফসিল না পেছানোর দাবি এরশাদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ গণভবনের সংলাপে ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মহাজোটের ব্যানারেই নির্বাচন করবেন। ৭০ আসনও তিনি দাবি করেছেন। সেই এইচ এম এরশাদ গতকাল নির্বাচন কমিশনে সম্মিলিত জাতীয় জোটের ব্যানারে গিয়ে তফসিল না পেছানোর দাবি জানিয়েছেন। একই সঙ্গে সিইসির সঙ্গে বৈঠকে ইভিএম ব্যবহার না করা এবং সেনাবাহিনীকে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে মোতায়েনসহ ৮ দফা দাবি জানিয়েছে। তার অন্যান্য দাবির মধ্যে রয়েছে মনোনয়ন ফরম সহজিকরণ, নির্বাচনে কালো টাকার প্রভাব ও অস্ত্রের ব্যবহার বন্ধকরণ, সহিংসতা ও সংঘাত এড়ানো, গাড়ি-মোটরসাইকেলের মহড়া সীমিতকরণ ও নির্বাচন কমিশন থেকে প্রার্থীদের একক ও অভিন্ন পোস্টার ছাপানোর ব্যবস্থা করা। নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে গতকাল দেড়ঘণ্টার বৈঠক করেন এরশাদের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোটের এক ঝাক নেতা। বৈঠকে ৮ দফা দাবিনামা সিইসি’র কাছে হস্তান্তর করা হয়। বৈঠক শেষে দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, নির্বাচন কমিশন ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণার সময় নির্ধারণ করেছে। যদ্দুর জনেছি বুধবার রাজনৈতিক সংলাপ শেষ হচ্ছে। আর কোনও সংলাপের অজুহাতে নির্বাচনের তারিখ পেছানোর কোনও যৌক্তিকতা আছে বলে আমরা মনে করি না।
ইভিএম ব্যবহার প্রসঙ্গে হাওলাদার বলেন, ভোটাররা এখনও ইভিএম ব্যবহারে অভ্যস্ত নয়। ভোটারদের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জনের জন্য আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও সময়ের প্রয়োজন। আমরা কমিশনকে বলেছি আপনারা স্বাধীন ও সংবিধান সম্মতভাবে নির্বাচন করুন। নির্বাচন কমিশন তাদের (জাপার) বেশ কিছু দাবির সঙ্গে সম্মত হয়েছে বলে রুহুল আমিন হাওলাদার দাবি করেন।
আগারগায়ের নির্বাচন কমিশনে সিইসি কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বে অন্য ৪ কমিশনার ও কমিশন সচিব বৈঠকে অংশ নেন। অন্যদিকে সম্মিলিত জাতীয় জোটের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে সংলাপে অংশ নেন দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যরিষ্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এমএ সাত্তার, জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু, প্রফেসর দেলোয়ার হোসেন খান, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, মীর আবদুস সবুর আসুদ, মশিউর রহমান রাঙা, শরীক দলের নেতা অধ্যাপক এমএ মোমেন, মাওলানা জালাল আহমেদ, আবু নাসের ওয়াহেদ ফারুকসহ এক ঝাক নেতা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরশাদ

১০ অক্টোবর, ২০১৯
৩১ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ