Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮, ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলতে চাচ্ছে সরকার

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৫ এএম

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেছেন, আদালতের নির্দেশে চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল, কিন্ত কোনো নোটিশ ছাড়াই তাকে আবার কারাগারে নেয়া হয়েছে। বিনা চিকিৎসায় সরকার খালেদা জিয়াকে মেরে ফেলতে চাচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা, গণতন্ত্র ও আইনের শাসনের দাবিতে ১৭ নভেম্বর আইনজীবীদের মহাসমাবেশ ঘোষণা করা হয়।
চিকিৎসার জন্য হাইকোর্টের নির্দেশনা থাকার পরও খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে পুনরায় কারাগারে ফিরিয়ে নেয়ায় আদালত অবমাননা হয়েছে বলেও দাবি করেন জয়নুল আবেদীন। তিনি বলেন, হাইকোর্টের নির্দেশে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার সঙ্গে আজ পর্যন্ত কোনো আইনজীবীকে দেখা করতে দেয়া হয়নি। বারের সভাপতি ও সম্পাদক হিসেবে আমরা দেখা করার জন্য আবেদন করেছিলাম। কিন্তু আমাদেরকে দেখা করতে দেয়া হয়নি। তার আত্মীয়-স্বজনরাও নিয়মিত দেখা করতে পারেননি বলে অভিযোগ করেন তিনি।
খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের অন্যতম সদস্য জয়নুল আবেদীন বলেন, গত ৬ নভেম্বর খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার জন্য আমরা (বারের সভাপতি ও সম্পাদক) আবেদন করেছিলাম কিন্তু আজ পর্যন্ত সে আবেদন তারা গ্রহণ করেনি। সকালে খবর পেলাম, মাত্র আধা ঘণ্টার নোটিশে আদালতকে কিছুই না জানিয়ে তাকে ব্যাগ অ্যান্ড ব্যাগেজ কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। আমরা তার আইনজীবী। আমাদের বিষয়টি জানানো উচিত ছিল। সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, বিনা চিকিৎসায় সরকার খালেদা জিয়াকে মেরে ফেলতে চাইছে। এতে আমাদের আইনজীবীদের এবং দেশের সাধারণ মানুষের মনে উৎকণ্ঠার সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থায় জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কিনা বা আদৌ নির্বাচন হবে কিনা- তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে।
সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে জয়নুল আবেদীন বলেন, আমরা সরকারকে অনুরোধ করছি খালেদা জিয়াকে আবার হাসপাতালে ফিরিয়ে নেয়ার। তার চিকিৎসার জন্য গঠিত বোর্ড না বলা পর্যন্ত তাকে হাসপাতালে রাখারও অনুরোধ করছি। এ সময় খালেদা জিয়ার মুক্তিও দাবি করেন তিনি। সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকনের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সমিতির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম মোস্তাফা, ট্রেজারার নাসরিন আখতার, সহ-সম্পাদক কাজী জয়নাল আবেদীন, অ্যাডভোকেট আহসান উল্লাহ, মাহফুজ বিন ইউসুফ, ব্যারিস্টার শফিউল মাহমুদ, ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান, ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান, সালাউদ্দিন, মো. টিপু সুলতান, আনিসুর রহমান রায়হানসহ বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ